প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:পণ্ডিতমশাই-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পণ্ডিতমশাই "לף জানিতেন, ধা:ে কারবার করিলে এ সব রোগে তাহার ঔষধ খাইয়া ছোটলৈাকগুলা পরদিন ভিজিট বুঝাইয়া দিবার জন্ত বাটিয়া থাকে না। শিবুর স্ত্রীও অত রাত্রে নগদ টাকা সংগ্ৰহ করিতে না পারিয়া, নিরুপায় হইলু কুন-জল খাওয়াইয়া, স্বামীর শেষ চিকিৎসা সমাধা করিয়া,সাপ, রাত্রি_ শিয়রে বসিয়া মা শীতলার কুপ প্রার্থনা করে। তারপর সকাল-বেলা છે । \ বৃন্দাবন বড়লোক, এ গ্রামে তাহাকে সবাই মান্ত করিত। মৃত স্বামীর গতি করিয়া দিবার জন্ত শিবুর সন্ত-বিধবা তাহার পায়ের কাছে কাদিয়া পড়িল । শিবুর সম্বলের মধ্যে ছিল, তাহার অনশন ও অৰ্দ্ধাশনক্লিষ্ট হাত দুখানি এবং দুটি গাভী। তাহারই একটিকে বন্ধক রাখিয়া এ বিপদে উদ্ধার করিতে হইবে । কোন কিছু বন্ধক না রাখিয়াও বৃন্দাবন তাহার জীবনে এমন অনেক গতি করিয়াছে, শিবুও গতি করিয়া অপরাহ্ল-বেলায় ঘরে ফিরিয়া আসিল। সন্ধ্যা উত্তীর্ণ হইয়া গিয়াছিল। তখনও বৃন্দাবন চণ্ডীমণ্ডপের বারান্দায় একটা মাদুর পাতিযা চোখ বুজিয়া শুইযা ছিল, সহসা পদশব্দ শুনিয়া চুহিয়া দেখিল, মৃত শিবুর সেই ছেলেটি আসিয়া দাড়াইয়াছে। هي তায় ন’স ষষ্ঠচরণ, বলিয়া বৃন্দাবন উঠিয়া বসিল । ছেলেট বার-দুই ঠোঁট ফুল।ইয়া পণ্ডিতমশাই বলিয়াই দিয়া ফেলিল। সদ্য-পিতৃহীন শিশুকে বৃন্দাবন কাছে টানিয়া লইতেই সে কাদিতে কাদিতে কঠিল, কেষ্টাও বমি কচ্চে। কেঃ তাঙ্গার ছোট ভাই, সেও মাঝে মাঝে দাদার সহি ঠশালে লিথিন্তে আসিত। / আজ পত্রে গোপাল ডাক্তার ভিজিটের টক আদায় না করিয়াই BBBBBBgSgBBBB SBBB BBBBS BBB BB BBBBS ঙ্গিত দেপিলেন, ঔষধ দিলেন, কিন্তু অবধ্য কেষ্ট মারের পুক-ফাট কান্না,