প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:পণ্ডিতমশাই-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৯৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫిఖీ পণ্ডিতমশাই আগে কাপড় ছাড়, তারপর বলুচি, বলিয়া সে জোর করিয়া তাহার আৰ্দ্ৰ বস্ত্র পরিবর্তন করাইয়া দিয়া কহিল, অন্যায় আমি কোন মতেই সইতে পারি নে ঠাকুরঝি, তা তোমার জন্যই হোক, আর আমার জন্তই গেক। ও হতভাগাকে আমি বাড়ি ঢুকতে দেব না-ওর মতলব আমি টের পেয়েছি। জননীর কথাটা সেলজ্জায় উচ্চারণ করিতে পারিল না। -/. কুসুম কঁাদকাদ হইয়া বলিল, মংলব যার যাই থাক বেদি,তোমার দুটি পায়ে পড়ি,আমার কথা নিয়ে কথা ক’য়ে আর আমাকে বিপদে ফেলো না। কিন্তু আমি বেঁচে থাকৃতে বিপদ হবে কেন ? কুসুম প্রবল বেগে মাথা নাড়িয়া কহিল, হবেই। চোখে দেখচি হবে, কপালে সজোরে আঘাত করিয়া কহিল, এই হতভাগা কপালকে যেখানে নিয়ে যাব, সেইথানেই বিপদ সঙ্গে সঙ্গে যাবে। রোধ করি, স্বয়ং ভগবানও আমাকে রক্ষা করতে পারেন না ! বলিয়া কঁাদিতে লাগিল । ব্ৰজেশ্বরী সস্নেহে তাহার চোখ মুছাইয়া দিয়া ক্ষণকাল চুপ কীিয়া থাকিয় আস্তে মাস্তে বলিল, বোধ করি নিতান্ত মিথ্যে বল নি । রাগ . করে না. ভাই, কিন্তু শুধু কপালের দোষ দিলে হবে কেন । তোমার নিজেরও কম দোষ নয় ঠাকুরঝি। কুসুম তাহান্স মুখের পানে চাহিয়া জিজ্ঞাসা করিল, আমার নিজের দোষ কি ? আমার ছেলে-বেলার ঘটনা সব শুনেচ ত ? শুনেচি। কিন্তু সে আগাগোড়া মিথ্যে। সমস্ত জেনে শুনে এস্ত্রী মাচুর্য তুমি-সিদূর পা না, নোয় হাতে রাখ না, স্বামীর কর না, এ কপালের দোষ না তোমার নিজের দোষ ভাই ? ,ন না হয় জ্ঞানবুদ্ধি ছিল না, এখন হযেছে ত ? তুমিই বল, কোন সধবা কবে, বিধবার বেশে থাকে ? w