পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ఫిk* পাল ও বর্জিনিয়া। অধিকতর মুকুমার, নিঝরবারি অপেক্ষাও পৰিত্ৰতর এবং জড়িতশাখা হইতেও দৃঢ়তর । মনেই এই সকল বিষয় আন্দোলন করত সে তৎক্ষণাৎ এক দীর্ঘ নিশ্বাস পরিত্যাগ করিল। একে সে তখায় রাত্রিকালে একাকিনী রহিয়াছে, তাহাতে আবার তাহার তাদৃশ উদ্বোধ হইতেছে, সুতরাং তখন তাহীর মনোৰুত্তির অন্যথাভাবের অসম্ভাবনা কি ? যখন তাহার তাদৃশ আন্দোলনে মনের গ্লানি হইতে লাগিল, তখন সে অমনি সেই বৃক্ষচ্ছায়া হইতে অপসৃত হইয়া জল হইতে গাত্রোথান করিল । এবং সেই স্নিগ্ধ নিঝরবারিকে দিনকর কিরণ অপেক্ষ অধিকতর সন্তপ্ত বোধ করিতে লাগিল । পয়ে সে, আপনার মনেই যে প্রকার ভাব উদয় হইতে লাগিল তাহ! কি প্রকারে মাতাদিগকে গোপন করিবে সেই জন্য সাতিশয় ব্যাকুল হইয় গৃহের অভিমুখে গমন করিল। গৃহে উপস্থিত হইয়া সাহসে নির্ভর করিয়া মনে করিতে লাগিল, আমি এখন মার কাছে গিয়া আপনার মনের বেদন সকল ব্যক্ত করিয়া কহি । এই ভাবিয়া সে বিবি দিলাতুরের নিকট গমন করিল, কিন্তু পালের নাম উচ্চারণ করিবার সময়ে তাহার সেই ক্লেশ সহস্ৰগুণে বৃদ্ধি পাইতে লাগিল। সুতরাং তাছার তখন কোন কথা কহ বড় সহজ হইয়া উঠিল ন। । অবশেষে সে এককালে নিরুপায় হইয়া কেবল অনবরত নয়নবারিক্তে জননীর ক্রোড় অভিষিক্ত করিতে লাগিল । বুদ্ধিমতী বিৰি দিলাতুর, কন্যার তাদৃশ মনোগত ভাব ও উদ্বেগ, ভাবে বুঝিতে পারিয়াও তাহার নিকটে