পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৫২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বজিনিয়া । $ 8 S সংগ্ৰহ করিল । পরে যে একটা নারিকেলের মালার বজিনিয়া জল পান করিত সেই মালাটা, তদনন্তর অন্যান্য বস্তু, প্রিয়তমার বিচ্ছেদে সেই হেয় বস্তু সকলও পালের মনে যেন বহুমূল্য রত্বের ন্যায় ৰোধ হইতে লাগিল । কখন সে, সে সকল লইয়া মহাসমাদরে চুম্বন করিতে লাগিল, কখনই সে সকল লইয়। অতি সাবধানে আপনার বক্ষঃস্থলে স্থাপন করিয়৷ চাপিয়া ধরিতে লাগিল । আহা ! এত সাধের যে উদ্যান ও ক্ষেত্রাদি ছিল তাহাতে পাল একেবারেই হতাদর হইয় পড়িল, কিন্তু করে কি, নিরুপায় ; দেখিল যে মাত মার গ্রেট ও তৎপ্রণয়িনী বিবি দিলাতুর তাহার নৈরাশ্যের উত্তরোত্তর বৃদ্ধি দেখিয়া মহা ব্যাকুল হইতেছেন, ৰিশেষতঃ সহায়াভাৰে তাহাদিগকে স্বয়ং পরিশ্রম না করিলে দিনপাত করা সুকঠিন হইয়। উঠিতেছে, এইহেতু তাহাকে ভাৰিয়া চিন্তিয়া ৰুদ্ধ দাস দমিঙ্গের সহযোগে পুনৰ্ব্বার কম্বিকৰ্ম্মে মনোনিবেশ করিতে হইল । এতাবৎপৰ্য্যন্ত সাৎসরিক বিষয়মাত্রে পালের কিছুমাত্র অনুধাবন ছিল না । কি লেখাপড়া, কি বিষয়কৰ্ম্ম, সৰ্ব্বৰিষয়েই সে অনভিজ্ঞ ছিল যাহাহউক, এতকালের পর সে এক দিন আমার নিকট আসিয়া কিঞ্চিৎ লেখা পড়া শিখিবার জন্য বিনয়পুৰ্ব্বক কহিতে লাগিল “মহাশয় ! যদি আপনি অনুগ্রহ-পুৰ্ব্বক আমাৰুে কিছু লেখাপড় শিখান, তাহাহইলে অনায়াসে ৰজিনিয়ার নিকট পত্রাদি প্রেরণ করিতে ও তৎপ্রেরিতe পত্র পাঠ করিয়া তন্মৰ্ম্ম অৰগত হইতে সমর্থ হইতে