পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । 8 영 দণ্ড, কিন্তু তাহাতে তাহার কোন উপকার দর্শিৰেঞ্চ না, যদি অধিক অর্থ পাঠাইয়া দাও, তাছা হইলে এ হীনাবস্থায় তাহাকে অসচ্ছন্দ ও ভারগ্রঙ্ক করা হইবেক” । আমি এদেশে উপস্থিত হইয়াই প্রথম ২ সমাচার পাঠাইবার জন্য অনেক অনুসন্ধান করিয়া ছিলাম, কিন্তু কোন ব্যক্তিকে আপনার বিশ্বাস পাত্র দেখিতে পাইলাম না । ইহাতে আমি কেবল অৰিশ্ৰান্ত বিদ্যাভ্যাসেই মনোনিবেশ করিতে লাগিলাম । করুণানিধান পরমেশ্বর আমার মনোগত ভাব বুঝিয়া আমার সেই উদ্যমে সহায়তা করিলেন এবং লেখাপড়ার বিষয়ে আমাকে অবিলম্বেই একপ্রকার সক্ষম ৰুরিয়া তুলিলেন । অনস্তর আমি কএক খান পদ্ধ কএক জন স্ত্রীলোকৰুে দিয়া পাঠাইয়াছিলাম, অকুমান হয় তাহার সে সকল লিপি না পাঠাইয়া আমার ঠাকুরাণীদিদির হস্তে দিয়া থাকিবেক সংশয় নাই ! এৰারকার এ পত্র খানি আমার বিদ্যালয়ের এক বন্ধুদ্বারা পাঠাইতেছি, মনে হইতেছে ইহা নির্বিঘ্নে পহছিতে পারে । এই পত্রের যে উত্তর লিখিয়া পাঠাইবে, তাহা যাহার নিকট পাঠাইয় দিলে আমি পাইতে পারিব, তাহার নাম খামও ইহাতে লিখিয়া দিলাম। আমার ঠাকুরাণীদিদি আমাকে কাহারো সহিত কোন পত্রাদি লেখনের সম্বন্ধ রাখিতে নিষেধ করিয়া দিয়াছেন । র্তাহার আশঙ্ক। এই যে তিনি আমার হিতৈষিণী কুইলে সে সকল লোক তাহাতে প্রতিবন্ধক হইবেক । অপর আমার প্রতি কাহারো সহিত দেখা সাক্ষাৎ করিবার অনুমতি নষ্ট, কেবল ৰুদ্ধা ঠাকুরাণীদিদি ও একজন প্রাচীন ভদ্রসস্তান