পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৭৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> やう8 পাল ও বর্জিনিয়া। দুই মাস কাল অতীত হইল, বজিনিয় এস্থান চাণ্ড হইয়াছে । সাড়ে আট মাস গাভ হইল, আমর তাহার সংবাদ পত্রাদি কিছুই পাইনাই । হয় ত সে প্রভূত ধন পাইয়া আমাকে নিধন বলিয়। বিস্মৃত হইয়াছে । মনের কথা বলিতে কি মহাশয় ! তাহার নিকট যাইবার জন্য, अमाद्र मन मिडीख बादूल इड़ेতেছে । এবিষয়ে মহাশয় বলেন কি ? আমি কি ফান্সদেশে গমন করিব ? অামি তথায় গেলে রাজকীয় কিছু কাৰ্যকৰ্ম্ম করিতে পারিব । সুতরাং ক্রমেই আমার পদের উন্নভি ও ধনের ও বৃদ্ধি হইবার সম্ভাবন । ধন হইলে, ৰজিনিয়ার ঠাকুরাণী দিদি আমার সহিত বর্জিনিয়ার বিবাহ না দিয়া থাকিতে পরিবেন ন। ধনগেীরবে যদি আমি তথায় বিশেষ মান সন্তুম পাইতে পারি, তাহা হইলে আমাদের সহিত उँीश८भद्र दूप्लेवडा श्झेदाद्र ८कन आश्रङिद्वङ्गे नडालথাকিবেক না” । বৃদ্ধ –“ভাল প্রিয়বৎস ! একটা কথা জিজ্ঞাসা করি, তুমি না আমার নিকট যখন তখন বলিতে, তুমি বড়লোকের ও প্রধান বংশের সন্তান নহ । ” পাল —হ!! আমার মা এমনি কথা বলিয়াথাকেন বটে, কিন্তু আপনি যদি জিজ্ঞ সিলেন, তবে যথার্থ কথা বলিতে কি, আমি সদ্বংশজাত কাহাকে বলে, তাহ। আজি পৰ্য্যন্তও ভালরূপে জানি না । আর আমি নিশ্চয় বলিতে পারি যে তামি কখন সদ্বংশ ব! ,অসদ্বংশ বিষয়ে কোন বিবেচনাও করিয়া দেখি নাই, কেবল মাতার প্রমুখtৎ শুনিতাম এই মাত্র ।