পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । ン 名> জন নাই, আমি কেবল বজিনিয়াকেই চাহি । বজিনিয়া নহিলে আমার সুখ সচ্ছন্দ সকলি বৃথা, ফল কথা সে থাকিলেই আমার সকল সুখ । সেই আমার दूल, नई आमाद्र भान, সেই আমার ধন । যদি বজিনিয়ার ঠাকুরাণী দিদি কোন লব্ধনাম সুপ্রসিদ্ধ ব্যক্তি নহিলে তাহার বিবাহ না দেওয়া স্থির করেন, এবং প্রসিদ্ধ হইবার নিমিত্ত যদি বিশিষ্ট বিদ্বান হুইবার আবশ্যক হয়, তাহাহইলে আমি বিদ্যাভ্যাসে প্রবৃত্ত হইব । তখন বিজ্ঞানশাস্ত্র শিক্ষা করিব, এবং সেই বিদ্য প্রভাবে স্বীয় দেশের যার পর নাই উপকার করিতে সমর্থ হইব । স্বয়ং কখনই কাহারে। গলগ্ৰহ হইব না । সুতরাং যাবজ্জীবন স্বাধীনতায় থাকিব । জনসমাজে মহীয়সী সুখ্যাতি লাভ করিৰ । তখন আর মান সন্ত্রম কাহাকেও করিয়া দিতে হইবেক না । সে সকল কাজেই আপন আপনিই হইবেক ’ । বুদ্ধ —“বৎস ! গুণ হইলেই সকল হয় এ কথা সত্য বটে, কিন্তু মনোমহত্ত্ব গুণ সৰ্ব্বত্র হইতে পারে না । এবং যাহাদের তাহ আছে তাহারাও সৰ্ব্বদা সুখী নহে । কেননা তাহাদের উপরি সকল লোকেই ঈর্ষা ও দ্বেষ করে । তুমি বলিতেছ যে তোমার মানুষের উপকার করাই প্রধান উদেশ্য, এ কথা বড় ভাল, কিন্তু আমার মত এই যে, এই পৃথিবীতে যে ব্যক্তি একটি সস্য উৎপাদন করে তাহার রড়২ গ্রন্থকার অপেক্ষাও বস্তুতঃ অধিক উপকার করা সিদ্ধ হয় ’ । পাল —“তবে বুঝি আমাদের বর্জিনিয়া এই জন, এখানে এ খেজুর গাছটি পুতিয়া বনবাসীদিগের উপ