পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৮৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


› ፃ 8 পাল ও বর্জিনিয়া। ফান্সে যাইব এবং তথায় গিয়া বর্জিনিয়ার পাণিগ্রহণ করিব । ফল কথা এই যে, জাহাজ আরোহণে আ র বিলম্ব করা ভাল দেখায় না” । ৰুদ্ধ —“তবে কি তুমি তোমার জননী মার গ্রেট ও ৰিৰি দিলাতুরকে পরিত্যাগ করিয়া যাইতে চাহ” ? । পাল —“ কেন ? আপনি ত যখন তখন আমাকে ভারতবর্ষে যাইবার জন্য পরামর্শ দিয়া থাকিতেন’ ? । ৱদ্ধ –“হা, আমি তোমাকে যাইতে কহিতাম বটে, কিন্তু তখনকার এক কথা স্বতন্ত্র ছিল । তখন বজিনিয়; এখানে ছিল, এখন ত সে এখানে নাই, কেবল তুমিই এখন মার গ্রেট ও বিবি দিলাতুরের অন্ধের যষ্টির ন্যায় অবলম্ব স্বরূপ রহিয়াছ’ । পাল —“ কেন মহাশয় । ভাবনা কি ? বর্জিনিয়! ত এখন ধনবতীর অtশ্রয় পাইয়াছে । সে এখন প্তাহার নিকট হইতে অনায়াসে কিঞ্চিৎ লইয়া মাতাদিগকে সাহায্য করিতে পারবে ’ । বৃদ্ধ —“ পাল! তুমি যে ৰুদ্ধ ধনৰতীর কথা কহিলে, তাহার পোষ্য কেবল বিৰি দিলাতুর নহে, তদ্ব্যতীত আর অনেককেই তাহাকে ভরণ পোষণ করিতে হয় । ঐ সকল ব্যক্তি, খাইতে পরিতে দেয় এমন কোন ব্যক্তি নাই বলিয়াই অন্ন-বস্ত্রের নিমিত্ত তাহার নিকট আপনাদের স্বাধীনতা পৰ্য্যন্ত হারাইয়। বসিয়াছে । তন্মপ্যে কেহ২ কোন নিভুত স্থানে, কেহব। কোন সম্যালীর মঠে থাকিয়া কালহরণ করে ○に販 33 | পাল –“অ৷ মর ! ইউরোপ তবে কেমন ধারা