পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । S q & দেশ ? অামার ইচ্ছা হইতেছে বর্জিনিয়া তথা হইতে এখনই ফিরিয়া আমুক । আর মিছামিছি সেখানে ধনিকুটুম্বের সাহায্য প্রত্যাশায় রহিয়াছে কেন ? আগ! সে এখানকার দীনহীন কুটীরে থাকিলে কি পর্যন্ত মুখ ভোগ করিতে না পারিত ! আহা ! যখন সে রাঙ্গা একখানি কাপড় পরিয়া রাঙ্গাফলের মালা মাথায় দিয়া মুসজ্জিত হইত, তখন তাহাকে কি আপরূপ দেখাইত না ? আইস বর্জিনিয়া ! তুমি এখনই ফিরিয়া ঘরে আইস । তোমার আর অট্টালিকায় থাকায় কাজ নাই, তোমার আর পরের ধনে অধিকারিণী হইবার প্রয়োজন নাই । আইস, তুমি এখন এই পৰ্ব্বতময় স্থানে অtইস । এই স্থানস্থ বনের ও আমাদের নারিকেল গাছের স্নিগ্ধ মুশীতল ছায়ায় আসিয়া বিশ্রাম কর । হায় ২ ! হয় ত তুমিও এখন আমার মত মনেই কতই ক্লেশ পাইতেছ ” । । (এই সকল কথা কহিতেই পাল নয়ন জলে অমনি অভিষিক্ত হইতে লাগিল । ) অনন্তর সে অামাকে কহিল, মান্যবর মহাশয়! বিনয় করিয়া ও গলবদ্ধ-বস্ত্র হইয়। বলিতেছি আপনি আমাৰুে কিছু গোপন করিবেন না । আপনি যেন আমার ভাগ্যে বজিনিয়ার সহিত মিলনের কথাটিই বলিতে পারিলেন না । ভাল, তাহাঘটিত আর একটা কথ। জিজ্ঞাসা করিতেছি, তাহাই অন্ততঃ বলিতে আজ্ঞা হউক । বর্জিনিয়ার কি এখন আমার উপরি পূৰ্ব্বের মত স্নেহভাব আছে? বোধ করি সে এখন আমাকে ভুলিয়া গিয়া থাকিবেক কেন না তাহার এখন সে দিন নাই, তাহার চারিদিকেই বড়হ লোকের