পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/২১৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । * e s ঞ্জের সেই শোকের শাস্তি ও তজ্জনিত তাহীদের মুখমগুলে সান্তু,নার চিত্নও দৃষ্টিগোচর হইতে লাগিল । তাহারা উভয়েই পালের উপস্থিতি-মাত্র অতিমাত্র সত্বর হইয়া তাহার নিকটে ধাবমান হইলেন এবং নিজ২ বাহুদ্বয়ে তাহার গ্রীব। আলিঙ্গন করিয়া ক্ষণকাল নিস্তব্ধভাবে দণ্ডায়মান রহিলেন । এতক্ষণ শোকাবেগে নেত্রহইতে বাষ্পবারি বাহির হইতে পারিতেছিল না, পালের মুখ দেখিয়া তাহ অনর্গল প্রবাহিত হইয় তাহীদের বক্ষঃস্তল প্লাৰিত করিতে লাগিল । সঙ্গেই পালেরও বক্ষঃস্থল নয়নজলে ভাসিতে লাগিল । গবর্ণর দিলাবৰ্দ্দন ই গোপনে আমাকে বলিয়া পাঠইলেন “ বর্জিনিয়ার মৃতশরীর নগর মধ্যে আনান গিয়াছে, এক্ষণে অামার মানস এই যে ইহা এখান হইতে গিরিজায় লইয়া গিয়া সমাহিত করা যায় ।” আনি সেই সমাচার প্রাপ্ত হইবামাত্র তখনি লুইস - বন্দরে গমন করিলাম এবং দেখিলাম যে সমাধিকার্য্য সমাধা করিবার জন্য নানাস্থান হইতে লোক সমুহ আসিয়া একত্র হইয়াছে। তৎকালীন অামার বোধ । श्डेज, बन ७३ जभूलग्न उभदौश्र खूबग-बिशैन श्हेग्न এককালে শ্ৰীশ্ৰষ্ট হইয়া গিয়াছে । অনন্তর বন্দরের নিকটে গিয়া দেখিলাম জাহাজের নিশান সকল উথপিত হইয়াচে ; এবং তথা হুইতে থাকিয়া ২ অনবরত কামানের শব্দ হইতেছে * । ক্ষণকাল বিলম্বেই সমা • জাহাজে মৃত হইলে তাহার সমাধি উপলক্ষে নাবিকেরা এইরূপ তোপধ্বনি করিয়া থাকে ।