পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩ ২ পাল ও বর্জিনিয়া। আসিয়া উপস্থিত হইলে পর কিছু দিন বিলম্বে তিনি কালগ্রাসে পতিত হইয়াছেন । এক্ষণে আমি অনাথ৷ ও অসহায়া হইয়া এস্থানে রহিয়াছি । পতিৱ মরণের পর আমি উাহার কিছুমাত্র ধন পাই নাই । যাহ। কিছু ছিল যথাসৰ্ব্বস্ব অপরের পর্যাপ্ত হইয়াছে। অর্থভাবে এখানে এমনি ক্লেশে পড়িয়াছি, যে আপনার উদর পোষণ করাও একান্ত কঠিন হইয়া উঠিয়াছে । না হয়, আপনার ক্লেশই হউক, তাহাও নয়, পরমেশ্বর আবার একটি কন্যা দিয়াছেন, সেটির ভরণ পোষণের জন্য আমাকে যথোচিত যাতনা সহ করিতে হইতেছে । এ অনাখমণ্ডলীতে আমার মুখপানে চায় এমন কাহাকেও দেখিতে পাই না। তুমি পিসী হও বলিয়াই তোমার নিকট দুঃখের কথা জানাইতেছি, অপরের কাছে হইলে কদাচ এ কথা বলিতাম না, আর বলিলেও অপর হইতে কোন উপকার হইবার সম্ভাবনা নাই । যাহা হউক পিসি ! মেয়েটি লইয়া বড় দুঃখ পাইতেছি, যদি অনুগ্রহ করিয়া छूमि আমাকে কিছু পাঠাইয়া দাও তাহা হইলে আমাকে জন্মের মত কিনিয়া রাখ ’ । এইরূপে বিৰি দিলাতুর কাকুতি ৰিনীতি করিয়া সেই পত্রখানি লিখিয়া পাঠাইলেন, কিন্তু সে ৰুদ্ধ। তাহার কিছুই উত্তর দিলেন না । বিৰি দিলাতুরের মন ক্ষণকালের জন্য অসন্তুষ্ট থাকিত না । সুতরাং তিনি তাদৃশ অপমানে জক্ষেপও করিলেন না । তিনি মনে মমে বিলক্ষণ জানিতেন যখন তিনি আপন পরিবার বর্গের অমতে আপন বিবাহ নিৰ্ব্বাহ করিয়াছিলেন তখন