পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/৭৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । * ○ করিত ‘ষে আমরা জানি এ স্থলে যাহার বাস করেন র্তাহারা অত্যস্ত ভদ্র লোক ’ । বস্তুতঃ তাহাদের গুণের কথা বর্ণনা করিয়া শেষ করা দুর্ঘট । তাহাদের এপ্রদেশে প্রচ্ছন্নভাবে বাস করা কেমন ধারা তাহা শুনিবে ? যেমন সৌরভময় কুসুম, কন্টকারত লতা পাতায় সমাচ্ছন্ন থাকিয়া দিজু গুলীকে আমোদিত করে তদ্রুপ । মুরভি কুসুম কোথায় কি ভাবে কি প্রকারে থাকে তাহ দেখিতে না পাইলেও যেমন তাহার সৌরভ প্রাপ্তিতে আমোদিত হইতে হয়, তেমনি তাহার। এখানে অজ্ঞাতবাসীদের মত থাকিয়৷ কেবল নিজ২ গুণ দ্বারা জনম গুলীর মনোরঞ্জন করিয়া গিয়াছে । সেই পরিবারের যখন পরস্পর কথোপকথন করিত তখন তাহাতে কাহারে নিন্দার গন্ধও থাকিত না । তাহাদের মনের সংস্কার এই ছিল, ষে বাস্তবিক দোষ উল্লেখ করিয়া পরকে নিন্দ করা একান্ত যুক্তিবিরুদ্ধ ন হইলেও অনিষ্ট করা সিদ্ধ হয় । কারণ নিন্দ করিবার সময়ে নিন্দকের মনে চপলতা, অবহেলা, এবং মিথ্যাকপনার প্রপঞ্চ উদয় হইতে থাকে। দেখ ষাহাকে দুষ্ট বলিয়া ৰোধ করা যায়, তাহার প্রতি ঘৃণা করা কিছু অসম্ভব নহে। এবং যাহার প্রতি ঘৃণা করিতে হয়, তাহার উপবি সহজেই বিরাগ জন্মে । সুতরাং সেই বিরাগকে কপট বন্ধুভায় আর ত না করিলে, সে ব্যক্তির সঙ্গে আর কদাচ সহবাস করিতে পারা যায় না । কিন্তু তাহীদের স্বভাব এই প্রকার ষে তাহার। বিশেষ কোন কারণ না থাকিলেও যেরূপে