পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ή ο পাল ও বর্জিনিয়া । বিরাজমান রহিয়াছে। তাহ যে মহাত্মার প্রতিমূৰ্ত্তি, র্তাহার গুণোৎকীৰ্ত্তন সেই মুৰ্ত্তির অবস্থান পাষাণেই ক্ষোদিত হইয়। তখন পর্য্যন্ত বৰ্ত্তমান আছে । দর্শন মাত্রে আমার অন্তঃকরণে আহলাদ সাগর উদ্বেল হইতে লাগিল । লিপি পাঠ করিতেই বোধ হইল, যেন কোন পুৰ্ব্বকালের লোক আসিয়া অামার সঙ্গে কথা বাৰ্ত্ত। ੇਿਕ । প্রায় দুই হাজার বৎসর পুৰ্ব্বে তাহ। নিৰ্ম্মিত হইয়াছিল, তথাপি ভদর্শনে কাহার মনে প্রাচীন কীৰ্ত্তির স্মরণ না হইত ? । সেই গুণোৎকীৰ্ত্তনের লিপি দেখিয়া বোধ হইল, ইহা অবশ্যই কোন প্রাচীন জাতির বিবরণ হইবেক । কিন্তু তাহাদের কেহই তখন তৎপ্রদেশে বৰ্ত্তমান ছিল না । সেই লিপি দেখিয়া অামার মনে যে সংস্কার উদিত হইয়াছিল তাহ! কি যুগান্তেও লুপ্ত হইতে পারে? অদ্যাপি তাহ আমার মনে জাগরূক রহিয়াছে। বেণুদণ্ডে লিখিবার পূৰ্ব্বে সেই কথা আমার মরণ হওয়াতে আমি মনে ২ স্থির করিলাম, এই ধ্বজদণ্ডে আমিও উহাদের গুণানুবাদক্ষোদিত করিয়া রাখিৰ । মনে ২ এই সঙ্কটপ স্তির করিয়া আমি সেই বেণুদণ্ডে এই কথা লিখিয়া রাখিলাম যে “ ধাৰ্ম্মিকের তোমাদিগকে সৎপথ প্রদর্শন করাউন, এবং ধৰ্ম্ম তোমাদিগের সঙ্গী হউন, ও তোমরাও সেই ধৰ্ম্মপথের পথিক হইয়া নিরাপদে কাল হরণ কর ” । পরে যে গন্ধৱক্ষের তলে উপবিষ্ট হইয়া পাল সমুদ্রের তরঙ্গ দর্শন করিত তাহার বহুকলে এই কথা ক্ষোদিত করিয়া রাখিলাম। “ বৎস! তুমিই ঈশ্বরতত্ত্ব জানিতে অনুরক্ত ”। অবশেষে বিবি দিলাতুরের দেহলীর উপ