পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/১১৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


o །ལྕེ་ག་ཝཱ་ལཱ་ཞེ་ཐག་གི་ এই জন্য ন্যায়-শাজ । *छिवांद्र i,"প্রথমে - কাব্য-গ্ৰন্থ পাঠে ন্যায়DDDB BBBt DDD DDDDDSBBBBB BBBBB BBBB BBBB BBBB BBBBS দৃষ্টান্ত-স্বরূপ মহাকবি শ্ৰীহৰ্ষ-প্রণীত 'নৈষধ’-কাব্যের একটা শ্লোক উদ্ধত করিতেছি – । SBBBB BBBBB BBBBBBB BBBBB BBBBBS BBBBB BBBBBB BBBBB B BBBBBBBtt ' ' ' ' , x . . . নলবিরহে সময়তী যখন রোজন করিতেছিলেন, দময়ন্তীর সখীগণ তাহার নয়নবাস্প দেখিয় । মহুমান করেন,-জললই অর্থাৎ নগাতাৰই সস্তাপের কারণ। এই শ্লোকে বাষ্প ও অনল এই ছুইটী শঙ্গ লইয়া সাধারণতঃ বিরোধ উপস্থিত হয়। কবি বলিতেছেন,-ময়ন-বাপ। দেখিয়া সন্তাপকয় অনল জস্থমিত হইতেছে। কিন্তু এ অঙ্কুমান কি যথার্থ। পৰ্ব্বতে ধূমায়মান বাশ দেখিতে পাইলেই ষে তাহাতে অগ্নির অস্তিত্ব বুঝিতে হইবে, তাহ কোনও ক্রমেই বলা যায় না। ধূম নাই, ধূমের সদৃশ বাষ্প আছে,—ইহাতে কি অগ্নির অস্তিত্ব BBBB BB S BBBBS BBB BBBBB BBBBB BB BBBS DDDBB BBBB BB D DDD DDDSB BBS BBBB BBB BBDD D BBBB BBBBB BDDD আশ্চৰ্য্যজনক হইলেও, শ্লোকের বাষ্প ও অনল পদস্বয় অশিষ্ট-প্রয়োগ মহে । এখানে ঐ দুই পদ দ্ব্যর্থবোধক ; বাষ্প অর্থে উষ্মা' ও 'নয়ন-জল, ‘অনল’ অর্থে ‘অগ্নি’ ও ‘নলাভাব’। বৈয়াকরণ ইহাতেও আপত্তি করিয়া বলিতে পারেন,—“নলাভাব অর্থ সিদ্ধ করিতে গেলে, শ্লোকস্থিত ‘অনল’-পদ নপুংসক লিঙ্গ হওয়া উচিত ছিল ; কিন্তু তাই ন হইয়া উহ। পুংলিঙ্গ-বৎ ব্যবহৃত হইয়াছে। সুতরাং‘অনল’ ও ‘বাম্প-পদ-দ্বয়ের ঐরূপ ব্যবহার ভ্রমমূলক । কিন্তু শ্ৰীহৰ্ষ কবির কি সেরূপ ভ্রমপ্রমাদ সম্ভাবনা ? স্তায়শাস্ত্রের শব্দ-খণ্ড’ বিভাগে জগদীশ BBBBB BBB DBBBS BBBS BBBBS BB BBBBBS BBBBBBS BB যখন ‘অবিবাদঃ এই পুংলিঙ্গ-পদ নিম্পন্ন হয়, তখন ‘মলস্তাভাবঃ অর্থে "অনলঃ পুংলিঙ্গ-পদ, কেন না নিম্পন্ন হইবে ? এ সম্বন্ধেও নানা তর্ক-বিতর্ক আছে ; কিন্তু সে তর্কের স্থান ইছ। নহে। এখানে আমরা এইমাত্র দেখাইতেছি, কাব্য, ব্যাকরণ, অলঙ্কার সর্ক-বিষয়েই নব্য স্থায়-শাস্ত্র এক্ষণে আপনার প্রভাব বিস্তাৱ করিয়া বসিয়াছেন। নৈয়ারিকগণের মত এই— স্তায়-শাস্ত্র আলোচনা না করিলে সংস্কৃত সাহিত্যে সম্যকরূপে প্রবেশ করিবার কোনও উপায় নাই। প্রমাণের পর প্রষেয়, অর্থাৎ প্রমাণের ৰিষয় । স্কার-মতে এই প্রমেয় আবার স্বাদশ BBBBS BBS BBBS BBBBS BBS BBS BBS BBS BBS BBBBBS BBS BBS BBBB বলা বাহুল্য, এই দ্বাদশ প্রমেয়েরও অনেক প্রকার-ভেদ আছে; যেমন, ইলিয় প্রমেয়ের মধ্যে চক্ষু কৰ্ণ ইত্যাদি, দোষ প্রমেয়ের মধ্যে রাগ খেৰ ইত্যাদি। ফলতঃ প্রমাণ হইতে নিগ্ৰস্থান পৰ্যন্ত ষোড়শ পার্ষের আলোচনায় বা অৰ্ধগ্রহণে কত কথারই অবতারণা হইয়াছে ও হইতে