পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/১২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাতঞ্জল-দর্শন । . ఫి বাক্স-সহ সাধু মৃত্তি ক-প্রোধিত হন । অতঃপর উস্তান-বাটির দ্বারদেশ রুদ্ধ করিয়া, চারিদিকে প্রহরীর বন্দোবস্ত হয়। উদ্যান-বাটিকার চতুঃসীমায় যাহাতে জন-প্রাণী পদার্পণ করিতে না পারে, মহারাজ রণজিৎ সিংহ সেইরূপ আদেশ প্রদান করেন । এই ভাবে চল্লিশ দিন চল্লিখ রাত্রি সাধুকে যাটীর মধ্যে পুতিয়া রাখা হয় । অবশেষে মহারাজ স্বয়ং, র্তাহার পৌত্র, তাহার কয়েক জন প্রধান সর্দার, জেনারেল ভেস্টম, কাপ্তেন ওয়েড এবং ডাক্তার ম্যাকগ্রীগর (ইতিহাস লেখক স্বয়ং ) প্রভৃতি উপস্থিত থাকিয় সাধুকে কবর হইতে উত্তোলন করেন। কিন্তু আশ্চর্য্যের বিষয় –সাধুর তখনও পর্য্যন্ত কোনই বৈলক্ষণ্য ঘটে নাই ; বাক্সের আবরণ উন্মোচন হইলে, সাধু, যথারীতি অভিবাদন করিয়া, সহাস্য-বদনে সকলের সহিত কথাবাৰ্ত্ত কহিতে লাগিলেন । ব্যাপার দেখিয়া, সকলেই আশ্চৰ্য্য ও স্তম্ভিত । সাধুর সম্মানার্থ তখন রাজ্য-মধ্যে ঘনঘন তোপধ্বনি হইতে লাগিল ; মহারাজ রণজিৎ সিংহ স্বহস্তে সাধুর গলদেশে রত্নহার পরাইয়া দিলেন ।” যে উদ্যানে রিদাস সাধুকে মুক্তি ক-প্রোথিত করা হইয়াছিল, সেই উদ্যানের নাম—“সর্দার KBBS BB BBBBBBS BBBBS BBS BBB BBB B BBBB BBBB BB S BB BBBB BBBS BBBBBBBS BBBBS BBBBB BBB BBBBBBB S BB অনেকেই তাহার নিদর্শন রাখিয়া গিয়াছেন । কাপ্তেন ওয়েডের বর্ণনায় প্রকাশ,~-হরিদাস সাধুকে যখন মুক্তিক-মধ্য হইতে উত্তোলন করা হইয়াছিল, তখন তাহার সৰ্ব্বাঙ্গ শীতল, কেবল মস্তকে উন্ম মাত্র ছিল । হানিগ্‌বাৰ্জারের ভ্রমণ-বৃত্তান্ত-গ্রন্থে আর এক সাধুর অপূৰ্ব্ব সমাধির কথা বর্ণিত আছে। অমৃতসহরে মৃত্তিকা-ধননের সময় মজুরের মাটর মধ্যে সাধুকে প্রাপ্ত হইয়াছিল । সাধু কতকাল মুত্তিক-প্রেথিত ছিলেন, কেহই তাহ। নির্ণয় করিতে পারে নাই । সাধু ও যোগভঙ্গে অমৃতসহরের পরিবর্তনাদি দেখিয়া আশ্চৰ্য্যম্বিত হইয়াছিলেন । র্তাহার সমাধির পূৰ্ব্বে সহরের এক অবস্থা ছিল ; আর সমাধির পর, সহরের সম্পূর্ণ নুতন অবস্থা । তিনি সহরের যে অতীত কথা কহিয়াছিলেন, তাহাতে শতাধিক বর্ষ পূৰ্ব্বে তিনি সমাধিস্থ হইয়াছিলেন,—ইহাই প্রতিপন্ন হয়। শিখ-গুরু অৰ্জ্জুনসিংহের সময়ে, প্রায় তিন শতাধিক বৎসর পূৰ্ব্বে, এই ঘটনা সংঘটিত হইয়াছিল। যোগদ্বারা BBD BBBB BBBB BB BBBB BBB gSgDS DD S BBBBB BBB B BBBB উঠিতে পারে, জল-মধ্যে ভাসমান সোলার ন্যায় বায়ু-মধ্যে ভাসমান থাকিতে পারে,— এ দৃপ্ত ৪ অনেকে প্রত্যক্ষ করিয়াছেন । ১৮৮৭ খৃষ্টাব্দে দাৰ্জিলিং পাহাড়ে কতকগুলি ইংরেজের সমক্ষে একজন তিব্ব ত-দেশীয় লাম। এই আশ্চৰ্য্য যোগ-ক্রিয় প্রদর্শন করিয়ছিলেন । যোগবলে মানুষ দীর্ঘ জীবন লাভ করে, যথেচ্ছ-স্থানে গমন করিতে সমর্থ BB BB BBBBB BBBB BBBBS BBSBBBBB gBBB BB BBBB DBBB আছে । কিন্তু পূৰ্ব্বেই বলিয়াছি তো-শিক্ষকের ও শিক্ষার অভাবে যোগ-সাধনা এখন বিলুপ্ত-প্রায় । যোগশাস্ত্র-বিষয়ক যে সকল গ্রস্থাদি অাছে, তাহার প্রকৃত অর্থ হৃদয়ঙ্গম কর। এবং তদহসারে কার্য্য করা-এখন ক্রমশঃই কঠিন হইয়া দাড়াইয়াছে ।