পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/১৮৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরাণ । > \5 DDYS SBBSSBBBBBSBB BBBSBBSBBB BBBS BB BBBB BB BB BBBBB হইয়াছে । এতদ্ভিন্ন অন্যান্য উপপুরাণে আরও কত শ্লোক নিবদ্ধ আছে, কে তাহার ইয়ত্ত করিবে ? যাহা হউক, এই পুরাণ-উপপুরাণ-সমূহে কি ধৰ্ম্ম-তত্ত্ব, কি সমাজ-তত্ত্ব, কি প্রত্ন-তত্ত্ব, কি ইতিহাস, কি যুদ্ধ-বিগ্রহ-পদ্ধতি, কি রাজ-নীতি, কি দর্শন, কি বিজ্ঞান, কি শিল্প, কি সাহিত্য,--সকল বিষয়েরই বিশদ চিত্র প্রতিফলিত দেখিতে পাই। পুরাণ-সমূহ পূর্বে যে ভাবে বিরচিত হইয়াছিল, এখন যে তাহ। অব্যাহত আছে, সে বিষয়ে সংশয় হয় । প্রথমতঃ, যে পুরাণের যেরূপ শ্লোকসংখ্য! সুচীপত্রে নির্দেশ অাছে, গণনায় প্রায়ই তাহার হ্রাস-বৃদ্ধি দেখা যায় । দ্বিতীয়তঃ, এক এক পুরাণে যে যে বিষয় বর্ণিত হইয়াছে বলিয়৷ পূৰ্ব্বাভাষে পরিচয় পাই, পুঙ্খানুপুঙ্খ মিলাইতে গিয়া, তাহার কোনও কোনও বিষয়ে অসামঞ্জস্য লক্ষিত হয় । তৃতীয়তঃ, একই বিষয়ের বর্ণনায় ভিন্ন ভিন্ন পুরাণে ভিন্ন ভিন্ন মত দেখিতে পাওয়া যায় । অধিকন্তু, কোনও কোনও পুরাণের বিশেষ বিশেষ বিষয়-পরম্পরার মধ্যে ভাবের, ভাষার ও ঘটনার অনৈক্য দেখিয়া, তৎসমুদায় প্রক্ষিপ্ত বা পরবৰ্ত্তি-কালে সংযোজিত বলিয়। বিশ্বাস হইতে পারে । মহাপুরাণসমূহ প্রধানতঃ মহর্ষি বেদব্যাস-প্রণীত বলিয়াই প্রচারিত । কিন্তু সকল পুরাণ যথাযথরুপে আলোচনা করিলে, তদ্বিষয়েও মতভেদ ঘটিবার সম্ভাবন) । অনেকে মনে করেন,— পরবর্ধি-কালে লিপিকারগণের লিপি-চাতুর্য্য-বশতঃ বিষয়-পরম্পরার সংযোগ-বিয়োগহেতু এরূপ গণ্ডগোল বাধিয়াছে। যাহা হউক, সে অবস্থায়, যে আকৃতিতে, পুরাণ-সমূহ এখন বিদ্যমান, আমরা তাহারই পরিচয় দিবার প্রয়াস পাইতেছি । প্রথম-ব্ৰহ্ম-পুরাণ। স্থত ও সৌনক ঋষির কথোপকথন-প্রসঙ্গে এই পুরাণ বিরচিত । পূর্ণ ও উত্তর--এই দুই ভাগে এই পুরাণ বিভক্ত। পূৰ্ব্বভাগে স্বষ্টি-প্রসঙ্গ, দেবতা ও অসুরগণের জন্ম-বিবরণ এবং চন্দ্রবংশ ও সুর্য্যবংশের বর্ণনা আছে । ব্ৰহ্ম-পুৰাণ স্বৰ্য্যবংশ বর্ণনাকালে এই গ্রন্থে শ্রীরামচন্দ্রের চরিত্র পরিবর্ণিত হইয়াছে ; এবং চন্দ্রবংশ বর্ণনা-কালে ইহাতে ঐকৃষ্ণের চরিত্র বর্ণিত আছে । প্রিয় , উত্তানপাদ, বেণ, পৃথু পুরুরব। প্রভৃতি রাজন্তবর্গেরও পরিচয় ইহাতে দৃষ্ট হয় । প্রজাপতি দক্ষের জন্মবৃত্তান্ত, পাৰ্ব্বতীর জন্ম ও বিবাহ,–ব্রহ্ম-পুরাণের অন্ততম বর্ণনার বিষয় । দ্বীপ, বর্ষ, স্বৰ্গ, নরক ও পাতালের বর্ণনা এবং স্থৰ্য্য প্রভূতি দেবগণের স্তুতিবাদ, এই খণ্ডে দেখিতে পাওয়া যায়। উত্তর খণ্ডে,-পুরুষোত্তম তীর্থের বিস্তৃত বর্ণনা, ঐরুষ্ণের চরিত্র ও গুণাহুবাদ এবং ধৰ্ম্ম-তত্ত্ব ও দর্শন-তত্ত্ব আলোচিত হইয়াছে । পুরুষোত্তম বর্ণনাপ্রসঙ্গে,-উড়িষ্ক ও জগন্নাথ-দেবের মন্দিরের পুরাতত্ত্ব এবং মন্দির ও নিকুঞ্জসমূহ কিরূপশুণে স্বৰ্য্য শিব ও জগন্নাথ-দেবের নামে উৎসর্গীকৃত হইয়াছিল, তবিবরণ লিপিবদ্ধ থিয়াছে। ব্ৰহ্ম-পুরাণের উত্তর খণ্ডে শ্ৰীকৃষ্ণের যে চরিত্র-চিত্র আছে, বিষ্ণুপুরাণে শ্ৰীকৃষ্ণচরিত্র বর্ণনার সহিত বর্ণে বর্ণে তাহার মিল দৃষ্ট হয়। এই পুরাণের উপসংহার-ভাগে,— নাগ-প্রসঙ্গ উথাপিত ও আলোচিত হইয়াছে। যুগ-ধৰ্ম্ম, তীর্থ-প্রসঙ্গ, গঙ্গার উৎপত্তি, শিখ ধৰ্ম্ম, মৃত্যু এবং পিতৃ শ্ৰাদ্ধ প্রকৃতির কথাও এই পুরাণে দেখিতে পাওয়া যায় । ।