পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/২৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৭২ - - - ভারতবর্ষ | না। মহাভারতের ঐতিহাসিকত্ব অবিসংবাদিতরূপে প্রতিপন্ন হইলেও, আশ্চর্য্যের বিক কোনও কোনও মহাপুরুষ মহাভারতকে রূপক বলিয়া উড়াইয়া দিবার চেষ্টা পান। পাশ্চাতদেশের গবেষণাই, অনেক স্থলে, এইরূপ রূপকের স্বষ্টিকৰ্ত্তা। এ সম্বন্ধে লাসেন-প্রমুখ ঐতিহাসিকগণের সিদ্ধান্তের প্রত্যুত্তরে বঙ্কিমচন্দ্ৰ যাহ। বলিয়াছেন, তাহা বড়ই BBB S BBB BB BB SBBBBBBSSBB SBBBBS BBBBSBBBBB BB BBB BBS যথা—অর্জুন অথ শ্বেতবর্ণ ; এজন্ত যাহা আলোকময়, তাহাই অর্জুন । যিনি অন্ধকার, তিনি কৃষ্ণ । কৃষ্ণা ও তদ্রুপ । পাণ্ডবদিগের অনবস্থান-কালে যিনি রাজ্য ধারণ করিয়াছিলেন, তিনি । BBBBS BBSBBBSBBBBB BBB BBS BB BBBB BBBB BBBBB BBBS ঐ পঞ্চ জাতির একীকরণ স্বচক মাত্র । যিনি ভদ্র অর্থাৎ মঙ্গল আনয়ন করেন, তিনি সুভদ্রা। অৰ্জ্জুনের সঙ্গে যাদবদিগের সৌহাৰ্দ্দই এই সুভদ্রা, ইত্যাদি-ইত্যাদি ।...সংস্কৃত সাহিত্যে বা শাস্ত্রে যাহ। কিছু আছে, তাহ রূপক হউক বা না হউক, রূপক বলিয়া উড়াইয়া দিতে অনেকেই ভালবাসেন । রামের নামের ভিতর ‘রম্' ধাতু পাওয়া যায়, এবং সীতার নামের ভিতর ‘সি’ ধাতু পাওয়া যায়, এই জন্য রামায়ণ কৃষিকার্য্যের রূপকে পরিণত হইয়াছে । জৰ্ম্মণ-পণ্ডিতের। এমনই দুই চাব্লিট ধাতু আশ্রয় করিয়া, ঋগ্বেদের সকল স্বত্তগুলিকে স্থৰ্য্য ও মেঘের রূপক করিয়া উড়াইয়া দিয়াছেন । চেষ্টা করিলে, বোধ করি পৃথিবীতে যাহা কিছু আছে, তাহা এইরূপে উড়াইয়া দেওয়া যায় । আমাদিগের মনে পড়ে, এক সময়ে রহস্তচ্ছলে আমরা বিখ্যাত নবদ্বিপাধিপতি কৃষ্ণচন্দ্রকে এইরূপ রূপক করিয়া উড়াইয় দিয়াছিলাম । তোমরা বলিবে, তিনি সে দিনের মকুন্য—তাহার রাজধানী, রাজপুরী, রাজবংশ, সকলই আজিও বিদ্যমান আছে, তিনিও ইতিহাসে কীৰ্ত্তিত হইয়াছেন। BBBB BBBB BB BB BS BBB BB BBBBBS BBBBS BBBBB BBB BB BBS পূর্ণ স্থানে তাহার রাজধানী। তাহার ছয় পুত্র, অর্থাৎ তমোগুণ হইতেই ছয় রিপুর উৎপত্তি । একজন বালক পলাসি-যুদ্ধ সম্বন্ধে এইরূপ রূপক করিয়াছিল যে, পল মাত্র উদ্ভাসিত যে অসি, তাহা ক্লাব-গুণ-যুক্ত ক্লৈব (clive) কর্তৃক প্রযুক্ত হওয়ায়, মুরাজা অর্থাৎ যিনি । উত্তম রাজা ছিলেন, তিনি পরাভূত হইয়াছিলেন। অতএব রূপকের অভাব নাই। আর এই বালক-রুচিত রূপকের সঙ্গে লাসেন-রচিত রূপকের বিশেষ প্রভেদ দেখা যায় না | আমরা ইচ্ছা করিলে, ‘লস’ ধাতু খোদ লাসেন সাহেবের নাম ব্যুৎপত্তি সিদ্ধ । করিয়া, তাহার ঐতিহাসিক গবেষণ। ক্রীড়াকৌতুক বলিয়। উড়াইয়া দিতে পারি।” বোধ । হয়, এতদ্বিষয়ে অধিক আলোচনা নিম্প্রয়োজন। অনেকে হয় তো জানেন, আর্ক-বিশপ | হোস্কেট্‌লি আপনার লজিক-গ্রন্থে তর্ক দ্বার প্রতিপন্ন করিয়াছেন—পৃথিৰীতে বীর । নেপোলিয়নের অস্তিত্ব ছিল না। ইহার অধিক হাস্যকর ব্যাপার আর কি হইতে পারে । ফলত, তর্কের সাহায্যে সত্য উড়াইয়া দিবার চেষ্টা করা যাইতে পারে ; কিন্তু উহাৰে । বাতুগত ভিন্ন আর কি বৃলিতে পারি ? কেহ কেহ আবার বলেন,-মহাবীর আলেক । জাণ্ডারের দুতরূপে মেগা স্থনীস ভারতবর্ষে আগমন করিয়া, ভারতবর্ধের যে বিবর" লিপিবদ্ধ করিয়া গিয়াছেন, তাহাতে কুরু-পাণ্ডৰ যুদ্ধের প্রসঙ্গ লিখিত হয় নাই ; স্থত?"