পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আর্য্য-জাতি । ২৩ ৷ aখাহার পূৰ্ব্বে ও পশ্চিমে সমুদ্র বিদ্যমান, উত্তর ও দক্ষিণে পর্বতমালা বিরাজমান, সেই পুণ্যভূমিই আৰ্য্যাবৰ্ত্ত ।” * ইহাতে প্রতিপন্ন হয়,--উত্তরে হিমালয় ও দক্ষিণে বিন্ধাচল, পূৰ্ব্বে ও পশ্চিমে ভারত-মহাসাগরের অন্তর্গত ৰঙ্গোপসাগর ও আরব-সমুদ্র,--এই BBBBBB BBBB BBBB BBBBS BBBBBB BBBB BBB BBB BB BBB উপলক্ষে আভাসে আর্য্যাবৰ্ত্তের পরিচয় অাছে। তাহাতেও বুঝা যায়,--হিমালয় ও বিন্ধ্যপৰ্ব্বতের মধ্যবর্তী স্থানেই আর্য্যদিগের বাসস্থান ছিল । * অমর-কোষে লিখিত অাছে, “বিস্কা ও হিমালয় পৰ্ব্বতের মধ্যবৰ্ত্তী দেশ আর্য্যবৰ্ত্ত অর্থাৎ আর্য্যদিগের বাসস্থান । এই আর্য্যাবৰ্ত্ত আবার ব্রহ্মাবৰ্ত্ত, ব্রহ্মর্ষি দেশ, মধ্যদেশ প্রভৃতি ভাগে বিভক্ত ছিল। স্বরস্বতী ও দৃষদ্বতী নদীর মধ্যবৰ্ত্তী প্রদেশ–ব্রহ্মাবৰ্ত্ত ; কুরুক্ষেত্র, মৎস্য, পাঞ্চাল ও সুরসেন প্রভৃতি দেশ–ব্রহ্মর্ষি দেশ ; হিমালয় ও বিন্ধ্যের মধ্যে এবং বিনশনের পূৰ্ব্বে ও প্রয়াগের পশ্চিমে যে দেশ, তাহাই মধ্যদেশ নামে অভিহিত হইত। ; যাহা হউক, এই আর্য্যাবর্তের অবস্থান-স্থান-সম্বন্ধেও নানা-জনের নানা মত দৃষ্ট হয়। তাহাতে এক এক সময়ে ভারতবর্ষের সীমা-পরিমাণ অধিকতর বিস্তৃত ছিল বলিয়া বুঝিতে পারা যায়। বামন-পুরাণে জম্বু দ্বীপ বা ভারতবর্ষের যে বর্ণনা আছে, তাহাতে প্রতিপন্ন হয়,—উত্তরে তুরস্ক পর্য্যন্ত ভারতবর্ষের সীমানা বিস্তৃত ছিল। মহর্ষি মসুর নির্দিষ্ট “আর্যাবৰ্ত্তের" সীমার ব্যাখ্যায় কেহ কেহ বলেন, —পূৰ্ব্বে চীনসমুদ্র এবং পশ্চিমে ভূমধ্যসাগর পর্য্যস্ত আর্য্যাবৰ্ত্তের বিস্তৃতির সম্ভাবনা । গ্রীক gBBBBB S BBBBS BBBBSBBBBBB BBBSBBB BBB BBBBBS S BBS সাইলেসিয়া, লাইসিয়া, পাম্ফেলিয়া প্রভৃতি দেশ পর্য্যস্ত বিস্তৃত ছিল ।” তরাস-গিরিশ্রেণী— এসিয়া মহাদেশের তুরস্ক-রাজ্যে অবস্থিত। তরু{স হইতে ককেশাস এবং ককেশাস পৰ্ব্বত হইতে হিমালয় পৰ্ব্বতের উত্তর পর্য্যস্ত, আরিয়ানের মতে, ভারতবর্ষের সামান ছিল । তাহা হইলে, আরব, পারস্য ও তুরস্কের কিয়দংশ এবং মধ্য-এসিয়ার বহুদূর পয্যন্ত (আফগানিস্থান ও বেলুচিস্থান সহ ) ভারতবর্ষের অন্তভুক্ত থাকা সম্ভবপর। চীন, পারসীক, পারদ, দরদ, হ্রণ প্রভৃতি জাতি ভারতবর্ষের সীমানার সন্নিকটে বাস করিত,—মনুসংহিতায় তাহার উল্লেখ দেখা যায় । আরিয়ান এবং মনুর মত মিলাইয়াই পাশ্চাত্য পণ্ডিতগণ ভারতবর্ষের তথা আৰ্য্যাবর্তের পূৰ্ব্বোক্তরূপ সীমানা নিৰ্দ্ধারণ করিতে প্রয়াস পাইয়। থাকেন। গ্রীক ঐতিহাসিক টলেমীর মতে আর্য্যাবর্তের সীমানা মধ্য-এসিয়ার

  • মনুসংহিতায় আর্য্যাবৰ্ত্তের সীমা এইরূপ নির্দিষ্ট হইয়াছে,—

“জাসমুদ্রাভ ৰৈ পূৰ্ব্বাদাসমুদ্রাক্ত পশ্চিমাৎ । তয়োরেবাস্তরং গির্য্যোয়াৰ্য্যাবৰ্ত্তং বিছুবুধি ॥” BBBBB BBB BB BBB BBBB BB BBB BBBBBSBBBBBBBBBBBBBDD DDDD S BBBBBBB BBBB BBBuB SBBS BBBB BBBS BBB BBS BBBDD BB S - + আদিপৰ্ব্ব, ৩৯শ অধ্যায়, ৪-৫ শ্লোক ক্রষ্টব্য । * “আৰ্য্যাবৰ্ত্ত: পুণ্যভূমি মধ্যং বিন্ধ্যহিমালয়োঃ " $ মনুসংহিতা, দ্বিতীয় অধ্যায়, ১৭-২২ শ্লোক ক্রষ্টৰ্য ।