পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৪১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৪৯৮ ভারতবর্ষ। - এক জষোধার রাজ-সিংহাসনের ইতিবৃত্ত যদি অনুসন্ধান করি, তাহতেই বাকি দেখিতে পাই! মহাপ্রন্থানের পূৰ্ব্বে ঐরামচন্দ্র আপন পুত্র ও ভ্রাতুপুত্ৰগণের মধ্যে রাজ্য বণ্টন করিয়া দিয়া যান। বিন্ধ্য-পৰ্ব্বতের নিকট কুশের রাজধানী প্রতিষ্ঠিত - ཨ་ཀྱཱ་ཀཱརྒྱུས"་ হয়। এরামচন্তু সেই নগরের কুশাবতী নাম রাখিয়াছিলেন। শ্রাবছি . নগরে লবের রাজধানী প্রতিষ্ঠিত হইয়াছিল। কুশ-কোশল-রাজ্যের এবং লব—উত্তর কৌশলের আধিপত্য লাভ করিয়াছিলেন । শক্রন্থের মুবাহু ও শক্রবাঙ্গ নামক তনয়দ্বয় যথাক্রমে মধুরা ও বৈদিশ-রাজ্যে প্রতিষ্ঠিত হইয়াছিলেন। ভরঙ্গে পুত্র তক্ষ --তক্ষশীলার,–এবং পুষ্কল-পুস্কলাবতের আধিপত্য লাভ করিয়াছিলেন। লক্ষণ-পুত্র অঙ্গদ এবং চন্দ্রকেতু—অঙ্গীয়া এবং মল্লভূমিতে প্রতিষ্ঠাস্থিত হইয়াছিলেন। এইরূপে কুমারগণকে আপন-জাপন রাজ্যে সুপ্রতিষ্টত দেখিয়া, স্ত্রীরামচঞ্জ প্রভৃতি যখন মহাপ্রস্থান করেন, অযোধ্যা তখন শূন্ত হইয়াছিল। পৌরজন সকলেই তাহাদের অনুসরণ করিয়াছিলেন। প্রানিগণের মধ্যে যাহারা সরযুজলে স্নান করিয়৷ দেহ-ত্যাগ করিয়াছিলেন, তাহার। সকলেই নরদেহ পরিত্যাগ পূর্বক দেবরথে দিব্যলোকে উপনীত হইয়াছিলেন। সেই সময়ে ৰন্থ বৎসর কাল মনোহর অযোধ্যাপুরী শূন্ত পড়িয় ছিল। অবশেষে, বহু বৎসর পরে, ঋষত-রাজার রাজত্ব-কালে, অষোধ্য-নগরী পুনরায় জনপূর্ণ হয়। রামায়ণের উত্তরকাণ্ডে, । চতুৰ্ব্বিংশতাধিক শততম সর্গে অযোধ্যার জনশূন্ততা সম্বন্ধে এইরূপ লিখিত আছে— SSBBBB BB DD BB BBBBB BBBS DDBB BB BBBB BBBBBBBBS ‘এঁরামচন্দ্রের স্বর্গারোহণের পর মনোহর অযোধ্যাপুরী বহু বৎসৱ পৰ্য্যন্ত শৃষ্ঠা থাকিয়া, ঋবত রাজার রাজত্ব-কালে, পুনরায় জনপূর্ণ হইবে সে ভবিষ্যৎ কাল কবে, কত দিন পরে এবং সে খবভই বা কোনু বংশ-সভূত-কোথাও তাহার নিদর্শন নাই । উপসংহারে যেমন ঋষভ, আরস্তে তেমনই স্কুপ রামায়ণের উত্তরকাণ্ডে এবং মহাভারতের ভূখমেধ পর্কে ক্ষুপ নামক ৰূপতির পরিচয় পাই। রামায়ণের মতে,—তিনিই - পৃথিবীর দাদি রাজা । স্বষ্টির আদি-কালে সত্যযুগে মকুন্তুদিগের কোনও এর, রাজা ছিল না বলিয়া মহজগণ ব্রন্থার শরণাপন্ন হন _ব্রহ্মা তখন - দেবতাগণকে অংশ দিতে বলিয়া, ছুপ পুঞ্জ করিয়৷ হাঁচিয়াছিলেন; তাহা হইতেই দেবতাদিগের অংশ লইয়া ক্ষুপ রাজ জন্মগ্রহণ করেন । বল বাহুল্য, পুরাণে ইঙ্কাকুর যে জন্ম-বিবরণ প্রকাশিত, স্কুপের জন্ম-বিবরণও এখানে প্রায় তদনুরূপ। অল্প দিকে, মহাভারতের অশ্বমেধ-পর্বে চতুর্থ অধ্যছয় ফুধু লিখিত্ব আছে, তাহাতে স্থপকে ইকুকুর পূর্ব-পুরুষ বলিয়া বুঝিতে পারা যায়। সেখানে ক্টির টানেন্টু রাজাৰ মরুষের বিবরণ শ্রবণ করিতে চাহিড়েছেন ; আর, ব্যাস তাহাতে বলিতেছেন“ছে তাত সত্যযুগে মই নামে প্রহ্মপালক দপ্তধর রাজা ছিলেন। তাছার পুত্র-প্রসন্ধি স্কুপ। স্কুপের পুত্ৰ—ইশ্বাস্থ।” এইবার বুৰিব সকল استعمحض آن سنشسسته سندد