পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৪৫৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দেবতা ও ব্রাহ্মণ । অবস্থান করিয়াছিলেন। চতুর্দশ–কুৰ্ম্ম-অবতার ; মন্দর পর্বত ধারণ করিয়া, ভগবান । সমুদ্ৰ-মন্থনে দেবগণের সহায়তা করিয়াছিলেন। পঞ্চদশ-নৃসিংহ অবতার ; এই অবতারে । নখ-দ্বারা হিরণ্যকশিপুকে ভগবান নিমেষ-মধ্যে বধ করিয়াছিলেন। ষোড়শ-বামনঅবতারে, ভগবান, দৈত্যরাজ বলিকে পাতালে প্রেরণ করেন। সপ্তদশ–ধন্বন্তরি-অবতারে, - ভগবান, ব্যাধিগ্রস্ত ব্যক্তিদিগের রোগ-নাশ করিয়াছিলেন ; এই অবতারেই ভগবান আয়ুৰ্ব্বেদ অনুশাসন করিয়া যান। অষ্টাদশ–পরশুরাম-অবতার। উনবিংশ অবতার—এঁরামচন্দ্র প্রভৃতি ভ্রাতৃ-চতুষ্টয়। বিংশ-শ্ৰীকৃষ্ণ ও বলরাম অবতার। এই অবতারে ভগবান বহু দৈত্য-দানবের সংহার-সাধন করিয়া, পৃথিবীর ভার লাঘব করেন। একবিংশ-বুদ্ধ অবতারে অসুরদিগের বুদ্ধির ভ্রম-সাধন ও লোভ-উৎপাদন জন্য পাষণ্ড-বেশে তাহাদিগকে নান৷ উপধৰ্ম্মের উপদেশ দিয়াছিলেন। দ্বাবিংশ--কল্কি-অবতার। ‘কলিযুগের শেষ-ভাগে যখন সাধুদিগের আলয়েও হরি কথা হইবে না ; যখন ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয় ও বৈশুগণ নাস্তিক হইয়া উঠিবে ; যখন শূদ্রের রাজ্যশাসন করিবে ; এবং যখন স্বাহ, স্বধা ও ববট কারবাণী শুনা যাইবে না ; ভগবান তখন কন্ধি-রূপে অবতীর্ণ হইয়া কলির শাসন করিবেন। এই সকল ভিন্ন শ্ৰীমদ্ভাগবতে কপিলদেবও ভগবানের অবতার বলিয়া পরিকীৰ্ত্তিত হইয়াছেন। মনুদুহিত। দেবহুতির গৰ্ত্তে কর্দম প্রজাপতির ঔরসে র্তাহার জন্ম হয়। বিশেষ-রূপে সাত্ম্য-জ্ঞান উপদেশ দিবার জন্য পরব্রহ্ম স্বয়ং-ভগবান কপিলরূপে সত্ত্ব-অংশে জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন । শ্ৰীমদ্ভাগবতের এই অবতার-তত্ত্ব আলোচনা করিয়া, স্বষ্টি-কৰ্ত্তার স্বরূপ-তত্ত্ব এবং অবতাররূপে সংসারে তাহার আবির্ভাবের বিষয়, বিশদভাবে উপলব্ধি হইতে পারে। পুঙ্খানুপুখ অনুসন্ধান করিতে গেলে, অবতারের সংখ্যা হয় না ; ভগবানের মহিমারও সীমা পাওয়া যায় না। অনুসন্ধিৎসু দেখিতে পান,-“কাৰ্য্য-কারণ-স্বরূপ সমুদায় বস্তুই সেই কারণ-রূপী নারায়ণ ভিন্ন আর কিছুই নহে।” শ্ৰীমদ্ভাগবতের প্রথম স্বন্ধে (তৃতীয় অধ্যায়ে ) এই অবতার-তত্ত্ব রূপান্তরে পরিবর্ণিত আছে। সেখানে দেখিতে পাই,—সেই বিরাষ্ট্র পুরুষ ভগবান সকল অবতারের অক্ষয় বীজ-স্বরূপ । তাহারই অংশ দ্বারা দেবতা, পশু, পক্ষী ও মনুষ্যাদি-রূপ নানাবিধ অবতারের সৃষ্টি হইয়াছে। তিনি প্রথমে বিরাটু পুরুষ রূপ ধারণ করিয়াছিলেন। পশ্চাৎ কৌমার নামক স্বষ্টি অবলম্বন পূর্বক ব্রাহ্মণ-রূপে অবতীর্ণ হন। এই অবতারে তিনি জগৎকে ব্রহ্মচৰ্য্য শিক্ষা দিয়াছিলেন। সেখানে ভগবানের একবিংশ অবতারের বিষয় উল্লিখিত হইয়াছে। এই অংশে লিখিত আছে—লারদ বৈষ্ণব-তন্ত্র প্রচার করেন ; দত্তাত্রেয়–অলৰ্ক ও প্রহাদাদির নিকট আত্ম-তত্ব উপদেশ দেন ; রুচির ঔরসে আকুতির গর্তে যজ্ঞ অবতারে এবং গয়া-প্রদেশে অঞ্জনের পুত্র বুদ্ধ অবতারে জন্মগ্রহণ করেন। সেখানেও লিখিত আছে,-“অবতারাহসংখ্যেয় হয়েঃ সত্ত্বনিধেৰিজাঃ। যথাবিদাশিনঃ BBBBB BBBB BB BBBDH HH DBBBBS SDDBB BBBS BDD BBB BB DDD জলাশয় হইতে অসংখ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জলপ্রবাহ নিৰ্গত হইয়া দিকে দিকে ধাবিত হয়, সেইরূপ সম্বনিধি একমাত্র পরমেশ্বর হইতে বিধি অবতারের উৎপত্তি হইয়া থাকে। অবতারদিগের BBB BB BBBB BBBS BB B BDBSS S S S