পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৪৭০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


霧Qb" . ভারতবর্ষ । কাম-বর্ণবর্ধিনী হইয়। আমাকে অভিসম্পাত করিলে ; অতএব তোমার কামনা পূর্ণ হইবে ন ; কোনও ঋষি-পুত্র তোমার পাণিগ্রহণ করিবেন না। আর, তোমার শাপে আমার বিদ্য।-শিক্ষা সফল না হইলেও আমি যাহাকে এ বিদ্যা প্রদান করিব, সে অবশুই সাফল্যলাভ করিবে ।" ইহার পর কচ দে বলোকে প্রস্থান করেন ; দেবযানির সহিত যযাতির পরিণয় ক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এই ঘটনায়ই বা আমরা কি বুঝিতে পারি ? বুঝিতে পারি ন কি-ঋষি-কন্যা ঋষি-পুত্রে বিবাহিত হইবারই আকাঙ্ক্ষা করিত, এবং সেই বিবাহই শ্রেষ্ঠ-বিবাহ-মধ্যে পরিগণিত ছিল ? উচ্চবর্ণের কন্যা নাচ-বর্ণে এবং নীচ-বর্ণের কন্যা যে কখনও উচ্চ-বর্ণে সমৰ্পিত হইত না,—তেমন কথা আমরা বলি না। তবে উচ্চ-বর্ণের সহিত উচ্চ-বৰ্ণ সম্বন্ধ-রক্ষায় যে অতিমাত্র ইচ্ছক ছিলেন;–এই সকল ঘটনায় নিশ্চয় তাহ উপলব্ধি হয় । স্বয়ম্বর-সভায় কোনও রাজ-কন্য। যখন বরমাল্য গ্রহণ করিয়! পতি-মনোনয়ন করিবার জন্য প্রস্তুত হইতেন, তখন ক্ষত্রিয়-সন্তানগণের মধ্য হইতেই প্রধানতঃ তিনি আপন বর মনোনীত করিতেন । সেখানেও বর্ণকুমত বিবাহেরই আভাস পাওয়া যায়। ব্রাহ্মণের সহিত ব্ৰাহ্মণ-কন্যার, ক্ষত্রিয়ের সহিত ক্ষত্রিয়-কন্যার বিবাহ-সম্বন্ধ বিহিত হইত ;–সে তে নিয়মই ছিল । অধিকন্তু ব্রাহ্মণের মধ্যেও গোত্র-বিশেষের সহিত গোত্র-বিশেষের বিবাহ নিষিদ্ধ ছিল । অতি প্রাচীন ভূস্থাদি-বংশেও এই প্রথার পরিচয় পাওয়া যায়। * মধুসংহিতায় ব্রাহ্মণ-ক্ষত্রিয়াদি চারি-বর্ণের অস্তিত্বই উল্লিখিত হইয়াছে। ভগবান মনু বলিয়াছেন,— SSBBBB BBBB BBBBBBB DDBBS BBB BB DSBB BlS BBB BBB tS অর্থাৎ,—ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয়, বৈখ্য, এই তিন বর্ণ দ্বিজাতি ; এবং চতুর্থ জাতি-শূদ্র । এতদ্ভিন্ন পঞ্চম জাতি নাই। এই চারি জাতি হইতেই অন্যান্যের উৎপত্তি,—মকু-বচনে তাহাই বুঝিতে পারা যায়। সময়ে সময়ে কোনও কোনও সমাজে এই জাতি-বন্ধন ছিন্ন করিবার পক্ষে যে চেষ্টা চলে নাই, তাহা নহে। ফলতঃ, পুরাতত্ত্ব আলোচনা করিলে, আমর। জাতি-বর্ণের অমুকুল ও প্রতিকুল—উভয় পক্ষের প্রমাণই দেখিতে পাই। আর, সে প্রমাণ দেখিয়া, প্রাচীন ভারতে জাতিভেদ-প্রথা ছিল না, --এ কথা কোনক্রমেই বলা যায় না। সমাজের আচার-ব্যবহার প্রভূতির বিষয় আলোচনা করিলেও অনন্ত কালের অনন্ত তত্ত্ব অবগত হওয়া যায়। অনেক পদ্ধতি এখনও যেমন প্রচলিত আছে, পূৰ্ব্বেও সেইরূপ প্রচলিত ছিল,—বুঝিতে পারি। আবার, অনেক পদ্ধতি পূৰ্ব্বে প্রচলিত ছিল, এখন বিলুপ্ত হইয়াছে,—তাহারও প্রমাণাভাব নাই। সমাজবন্ধনের বিষয় পূৰ্ব্বেই বলিয়াছি। বিবাহ-পদ্ধতির বিষয়ও পূৰ্ব্বেই আভাসে প্রকাশ করিয়াছি। কলিযুগের নিষিদ্ধ ধৰ্ম্ম-কর্মের বিবরণে বুঝিতে পারা যায়, —প্রাচীন কালে কোন প্রথা প্রচলিত ছিল, আর কোন প্রথা রহিত হইয়া গিয়াছে। t মন্থদি সংহিতায় লিখিত ৰিবাহ-পদ্ধতির বিষয় আলোচনা করিলে, কত প্রকার বিবাহ SDS DDDBS BBSgS BBBS BB DDD BB BB BBBDDSDD DDD DD DDD DD DDD 尊賞拉" 竊托寧} 。 。“。。リ ? कणिभू:भन्न निरिक कक्ष जबूःश्ञ विद्म गरे । স্ট্রঞ্চ ঞ্ছ ষ্ট্র কে ! o ':' : ; সামাজিক च [5 [भू-सूjमें हाँग्न ! সপ্তদশ পরিচ্ছেদে, ১৮৮ম-১৮৯ম পৃষ্ঠায়,