পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৫৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বেদ-চতুষ্টয় । as দীক্ষিত করিতেন । * পুরুষানুক্রমে এই ভাবেই বৈদিক স্তোত্র-সমূহ ংসারে চকিয়া আসিতেছিল। বেদের অপর নাম-শ্রীতি ; শিয়ানুশিয়ক্রমে শ্রুতি-পরম্পরায় চলিয়। আসিয়াছিল,—সেই জন্যই বেদের অপর নাম—‘শ্রুতি । কালপৰ্ম্মে ময়ূন্যের ধুতি-শক্তির হ্রাস হইতেছে —উপলব্ধি করিয়া, জনহিত-ব্রতধারী ঋষিগণ বেদের স্বত্ত-সমূহ লিপিবদ্ধ করিতে আরম্ভ করেন ; এবং তাহারই কিছুকাল পরে, কোন স্বত্ত কিরূপভাবে যাগ-যজ্ঞBBBB BBBB BBBS BB BBBB BBBB DBS SBBBS BBBBSBBB স্থষ্টি হয় । ব্রাহ্মণ-ভাগ-গদ্যে রচিত । বেদের শাখা-অনুসারে ব্রাহ্মণ-ভাগের সংখ্যাধিক্য ঘটিয়াছিল,—পূৰ্বেই তাহ বলা হইয়াছে । ব্রাহ্মণ-ভাগকে পরবৰ্ত্তি-কালে বেদের উপসংহার-ভাগ বলিয়াও কেহ কেহ নির্দেশ করিয়া গিয়াছেন । বেদের ব্রাহ্মণ-ভাগের পর, আরণ্যক ও উপনিষদের নাম উল্লেখযোগ্য । ব্রহ্মচৰ্য্য-গ্রহণে অরণ্যাশ্রমে বাস করিবার সময়, গুরুর নিকট বেদ-বিষয়ক যে আলোচনা ও শিক্ষালাভ হইত, আরণ্যক-গ্রন্থে তাহাই লিপিবদ্ধ হয় । অরণ্যাশ্রমে উহা সুচিত হইয়াছিল বলিয়াই, উহার নাম-আরণ্যক । BBBSBBBB BBBB BBS BB BBBB BBBB BBBSSSBBBB BBBB BB BBB BBB BBB S BBBBBB BBS BBBBB S BBBBBB BBB SBB BBBSBBBB B BBBBB একই সময়েই রচিত হইয়াছিল । উপনিষৎ শব্দের অর্থ--[ উপ+ নি+ সদ(গমন)+ ক্ষিপ ] সমীপ গমন ; অর্থাৎ যদ্বারা ব্রহ্মের সমীপত্ত্ব প্রাপ্ত হওয়া যায়, আত্মভাব উপলব্ধি হয়,—তাহাই উপনিষৎ । ব্রাহ্মণ-ভাগ-কৰ্ম্ম কাণ্ড ; উপনিষৎ—জ্ঞানকাও । ব্রাহ্মণভাগে কৰ্ম্মকাণ্ড দ্বারা পুণ্যলাভের সার্থকতা প্রতিপন্ন হইয়াছে ; উপনিষদে জ্ঞানের স্বারা আত্মতত্ত্ব-নিরূপণের বীজ নিহিত আছে। অধুনা উপনিষৎ নামে বহু গ্রন্থের পরিচয় পাওয়া যায়। কিন্তু আদি উপনিষৎ বারখানি বলিয়া প্রতিপন্ন হয়। তৎসমুদায়, বেদের ব্রাহ্মণ ও অরণ্যক ভাগের অংশ-মধ্যে পরিগণিত। উপনিষদের পর—দর্শন । দর্শন-শাস্ত্র প্রধানতঃ ছয় ভাগে বিভক্ত এবং ষড়দর্শন নামে উহা অভিহিত। বেদে যাহার আভাস ছিল ; আরণ্যক ও উপনিষদে যাহার বিবৃতি হইয়াছিল ; দর্শন-শাস্ত্রে তাহারই প্রমাণ-প্রয়োগ প্রদর্শিত হয় । ব্রাহ্মণ-ভাগের অপর অঙ্গ—-স্মৃতি । স্মৃতি শব্দের অর্থ–[ স্মরণ)+তি ] পূৰ্ব্বানুভূতি। বেদে যাহ আছে, মন্থাদি ঋষিগণের স্বতি, তাহারই মৰ্ম্ম গ্রহণ করিয়া যে গ্রন্থ রচনা করেন,—তাহাই স্মৃতি । স্মৃতি-সম্পূর্ণরূপ বেদাম্ববৰ্ত্তিন । স্মৃতি-সমূহ—মম্বাদি-প্রণীত সংহিতা নামে অভিহিত। স্মৃতি এবং দর্শনশাস্ত্রের প্রণয়ন সম্বন্ধে মতদ্বৈধ দৃষ্ট হয়। অনেকেই বলেম-দৰ্শনের পূৰ্ব্বে স্থতি বিরচিত হইয়াছিল। স্মৃতির পর,—পুরাণ, উপপুরাণ, তন্ত্র প্রভৃতি। পুরাণের সংখ্য—অষ্টাদশ ; উপ-পুরাণের সংখ্যা-অনেকগুলি । বেদ-বিহিত ধৰ্ম্ম-কৰ্ম্ম, দৃষ্টান্ত উপদেশাদি দ্বারা জনসাধারণের বোধগম্য করিবার উদ্দেশুই, প্রধানতঃ পুরাণ-পরম্পরা প্রণীত হয়। ইহাতে সময়-বিশেষের আচার-ব্যবহার ক্রিয়-কলাপ প্রভৃতিরও পরিচয় পাওয়া যায়। এক হইতে যেমন বহুতর পদার্থের উৎপত্তি হইয়া থাকে ; এক বৃক্ষ হইতে যেমন বহুতর বৃক্ষ

  • ঋগ্বেদের পঞ্চম মণ্ডলের অষ্টাদশ শুক্তে এই বিষয়ের উল্লেখ আছে ।