পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৭৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গৰু-উপনিষ্ঠুং। আরণ্যকই উপনিষদের মুলীভুক্ত। জা s: স্বত্র নিহিত আছে, উপনিষদে তাহাই বিবৃত হইয়াছে। ব্ৰহ্মতত্ত্ব নিরূপণের জন্য, . ঋষিগণ অনেকেই উপনিষদকে বেদান্ত বা বেদের শিরোভাগ বলিয়া । BBBBBBSBBB BBBS BBBBBS BBBi HBB BBB BBB BBB S - দেখাইয়াছি—“ঈশ্বর-সামৗপ্য-লাভই উপনিষদের উদেখ ” যাহার। সংসার-পন্ধে নিমজমান ব্ৰহ্ম-চিন্তায় ইহাদের চিত্ত কখনও প্রধাবিত নহে, উপনিষৎ তাহাদিগকে ব্রহ্ম সাক্ষাৎকার লাভের পথ দেখাইয়া দেন। জীবাত্মা এবং পরমাত্মার অভেদ-ভাব উপনিষদেই প্রতিপন্ন হয়। প্রবৃত্তি ও নিবৃত্তি—ধৰ্ম্ম-সাধনার দুই অঙ্গ । - ইহলৌকিক ও পারলৌকিক মুখ-সাধনের উদ্দেতে হিন্দু যে অনুষ্ঠান করিয়া থাকেন, তাহাই প্রবৃত্তি অঙ্গ ; আর যদ্বারা সংসারের মায়া-মোহ পরিত্যাগ করিয়া পরমাত্মায় লীন হওয়া যায়, তাহাই নিবৃত্তি অঙ্গ। উপনিষদে সেই নিরক্তি অঙ্গই বর্ণিত আছে । সে হিসাবে উপনিষৎ-জ্ঞানযোগ নামে অভিহিত হইয়া থাকে উপনিষদের সংখ্যা অনেক ছিল। কোথাও এক শত আট খানি উপনিষদের, কোথাও झुङ्गे भड नाँच्नक्लिक्ष धार्मि উপনিষদের নামোল্লেখ দেখিতে পাওয়া যায়। বিদ্যাৱণ্য-স্বামীর মতে,—ঐতরেয়, তৈত্তিরীয়, ছান্দোগ্য, মুণ্ডক, প্রশ্ন, কৌষীতকী, মৈত্রায়ণীয়, কঠবস্ত্রী, শ্বেতাশ্বর, বৃহদারণ্যক,তলবকার, নৃসিংহোত্তর-তাপনীয়,—এই বারখানিই প্রধান উপনিষৎ। মতান্তরে, বত্রিশখানি উপনিষদের প্রাধান্য কথিত হইয়া থাকে ; যথা, ঋগ্বেদান্তর্গত—ঐতরেয়, কৌষীতকী ; কৃষ্ণ যজুৰ্ব্বেদের অন্তর্গত--কঠ, তৈক্তিরীয়, ব্রহ্ম, কৈবল্য, শ্বেতাশ্বতর, গর্ত, নারায়ণ, ব্রহ্মা বা অমৃতবিন্দু, অযুতনাদ, কালান্ধি রুদ্র, ক্ষুরিকা; শুক্ল যজুৰ্ব্বেদের অন্তর্গত—ঈশ, বৃহদারণ্যক, জাবাল, হংস, পরমহংস, সুবাল, মন্দ্রিক ; সামবেদান্তর্গত-কেন, ছন্দোগ্য, আরুণি, মৈত্রায়ণী, মৈত্রেয় ; অথৰ্ব্ব-বেদান্তর্গত—প্রশ্ন, মুওক, মাণ্ডুক্য, অথৰ্ব্বশির, অথৰ্ব্বশিখা, বৃহজ্জাবাল, নৃসিংহতাপনি। এই বত্ৰিশখানি উপনিষৎ আজিও এদেশে প্রচলিত আছে। কিন্তু অস্তান্ত উপনিষৎ এখন আর তাদৃশ প্রচলিত নাই। পরবৰ্ত্তি-কালে উপনিষৎ-সম্বন্ধে অনেক ব্যভিচার খটিয়াছিল ;–এমন কি, তখন যে কোনও ব্যক্তি আপম মত-প্রতিষ্ঠার জন্য উপনিষৎ-নামে গ্রন্থ রচনা করিয়াছিলেন। অন্নোপনিষৎ প্রভৃতিই ইহার প্রমাণ । অক্টোপনিষৎ—বাদসহ আকবরের সময়, মুসলমান-ধৰ্ম্মের প্রাধান্য প্রতিপাদনের জন্ম । বিরচিত হয় । মস্তেযুবৎ তবারিক’ গ্রন্থে অন্নোপনিষৎ-রচনার কারণ-সম্বন্ধে কিঞ্চিৎ আভাস । পাওয়া যায়। কথিত হয়,—হিজরি ৯৮৩ সালে ( ১৫৭৫ খৃষ্টাব্দে ) সম্রাট আকবর বদাউনি মামক জনৈক মুসলমানকে অথৰ্ব্ববেদের অম্বুবাদ করিতে বলেন। ইসলাম-ধর্শের সহিত । অথৰ্ব্ববেদের কতকগুলি ধৰ্ম্মেপদেশের ঐক্য আছেঃ-গুনিতে পাইয়া, বাদসহ সেই আদেশ BBB BBBBBBB DDDDSBBB BBBB BBBBBB BB BBBB BBBB BBBBS না। তখন ফৈজি ও ইব্রাহিমের উপর তাহারাই বা কি কৱিবেন? ইতিমধ্যে ভ মুসলমান-স্বশ্ব অবলম্বন করেন। তখন স্তাহ