পাতা:প্রকৃতির প্রতিশোধ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ՀՀե সন্ন্যাসী । প্রকৃতির প্রতিশোধ আমায় বঁাশিতে ডেকেছে কে ! দেখি গে তার মুখের হাসি, তারে ফুলের মালা পরিয়ে আসি, তারে বলে আসি তোমার বঁাশি অামার প্রাণে বেজেছে । অামায় বঁাশিতে ডেকেছে কে ! জগৎ সম্মুখে মোর সমুদ্রের মতে, আমি তীরে বসে অাছি পর্বতশিখরে— তরঙ্গেতে গ্ৰহতারা হতেছে আকুল, ভাসিতেছে কোটি প্রাণী জীর্ণ কাষ্ঠ ধরি। আমি শুধু শুনিতেছি কলধ্বনি তার, আমি শুধু দেখিতেছি তরঙ্গের খেলা । কিরণকুন্তলজাল এলায়ে চৌদিকে রুদ্র তালে নৃত্য করে এ মহাপ্রকৃতি । আলোক অঁাধার-ছায়া, জীবন মরণ, রাত্রি দিন, আশা ভয়, উত্থান পতন, এ কেবল তালে তালে পদক্ষেপ তার । শত গ্রহ, শত তারা, শত কোটি প্রাণী প্রতি পদক্ষেপে তার জন্মিছে মরিছে । আমি তো ওদের মাঝে কেহ নই আর, তবে কেন এই নৃত্য দেখি-না বসিয়া ! একজন পথিক গান যোগী হে, কে তুমি হৃদি-আসনে । বিভূতিভূষিত শুভ্ৰ দেহ, নাচিছ দিক্ৰ-বসনে । 8 & 6. () උ ඌ ز) وا\ 4 ما\