পাতা:প্রকৃতির প্রতিশোধ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সন্ন্যাসী । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । ক স্যা । স্ত্রী । সন্ন্যাসী । প্রকৃতির প্রতিশোধ সন্ন্যাসীর প্রবেশ । একটি কন্যা লইয়া স্ত্রীলোকের প্রবেশ কোথায় চলেছ বাছ ? প্রণাম ঠাকুর । ঘরেতে যেতেছি মোরা । 8 (? সেথায় কে আছে ? শাশুড়ি আছেন মোর, আছেন সোয়ামী, শক্রমুখে ছাই দিয়ে ছটি ছেলে আছে । কী কাজে কাটাও দিন বলে মোরে বাছা ! ঘরকন্না-কাজ আছে, ছেলেপিলে আছে, (? 0. গোয়ালে তিনটি গোরু তার করি সেবা, বিকেলে চরকা কাটি মেয়েটিরে নিয়ে । সুখেতে কি কাটে দিন ? দুঃখ কিছু নেই ? দয়ার শরীর রাজা প্রজার মা-বাপ, কোনো তুঃখ নেই প্রভু ! রামরাজ্যে থাকি । (? (? এটি কি তোমারি মেয়ে বাছা ! হা ঠাকুর । কন্যার প্রতি যা না রে, প্রভুরে গিয়ে কর দণ্ডবৎ । অায় বৎসে, কাছে আয়, কোলে করি তোরে । আসিবি নে ! তুই মোরে চিনেছিস বুঝি— \ 0 و( নিষ্ঠুর কঠিন আমি পাষাণহৃদয়, অামারে বিশ্বাস করে আসিস নে কাছে ! মাকে টানিয়া মা গো, ঘরে চলো । তবে প্রণাম ঠাকুর । যাও বাছ, সুখে থাকো আশীৰ্বাদ কৱি ৷ ৬ ৫ [ সন্ন্যাসী ব্যতীত সকলের প্রস্থান