পাতা:প্রকৃতির প্রতিশোধ - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৯৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দৃষ্ঠ ॥ ছত্র সংস্করণ ; সারণী ২ : প্রথম সংস্করণ “ ཞི། བཞི་ বর্তমান / প্রথম ও অস্তান্ত দীন হীন ক্ষীণ ভীত সংশয়ে অধীর, । রোগে শীর্ণ শোকে জীর্ণ ক্ষুধাতৃষ্ণাতুর ! কেহ বা ধূমের মাঝে চিতার আলোকে উন্মাদ প্রমোদ ভরে নৃত্য করিতেছে, কঙ্কালেরা করতালি দিতেছে সঘনে, হাসিতেছে অট্টহাসি, জাগিছে নিশীথ ! রবি শশি রক্ত নেত্রে দীপ হাতে করি . গণিতেছে মুহরহ কঙ্কালের মালা ! হৃদয়-শোণিত মাঝে মায়া-বিষ ঢেলে প্রাণেরে পাগল করে দেয় ষে প্রকৃতি, শ্মশানেরে স্বৰ্গ বলে ভ্রম হয় ভাই ; মৃত্যুরে দেখায় যেন জীবনের মত ! আগ্রহে অধীর হয়ে পাগলেরা মিলে আপনার চারিদিকে মৃত্যু রাশ করি জীবনেরে তারি মাঝে ফেলিছে পুতিয়া । নিশ্বাস ফেলিতে সেথা স্থান কোথা নাই— পদে পদে পড়ে যাই গুহা গহবরে ! এও যদি ভাল লাগে সে কি মহামায়া ! প্রকৃতি, সে মায়ানেশা ছুটে গেছে মোর ! ছিছি তোর কাছে আর যাব না কখনো— সৌন্দৰ্য্য আমাতে আছে, তোর কাছে নাই ! স - ১ ৯ ॥ ২৮ ১/২৯ বর্জিত (স° ২-৭ ) : এত স্নেহ, এত সুধা, এ কি কিছু নয়! / স* ১ & || \56. জগৎ স - ৪-৭ | জগত نتا- لا ১০ । ৩ /৪ বর্জিত (স° ২। ৪-৭ ) • : জগৎ অদৃশ্ব সত্য, অরূপ অব্যয়, অক্ষর আকারে শুধু লিখিত রয়েছে। স* ১