পাতা:প্রবন্ধ পুস্তক-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১০৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভারত কলঙ্ক । مb* প্রাচীন হিন্দুদিগের এ কলঙ্কের তৃতীয় কারণ,—হিন্দুরা বহুদিন হইতে পরাধীন। যে জাতি বহুকাল পরাধীন, তাহfদিগের আবার বীরগৌরব কি ? কিন্তু এক্ষণকার হিন্দুদিগের বীৰ্য্য-লাঘব, প্রাচীন হিন্দুদিগের অবমাননার উপযুক্ত কারণ নতে। গ্রায় অনেক দেশেই দেখা যায় যে, প্রাচীন এবং আধুনিক লোকের মধ্যে চরিত্রগত সাদৃশ্য অধিক নহে। ইটালি ও গ্রীস, তারতবর্ষের ন্যায় এই কথার উদাহরণস্থল। মধ্যকালিক ইটালীয়,এবং বর্তমান গ্রীকদিগের চরিত্র হইতে প্রাচীন রোমক ও গ্রীকদিগের কাপুরুষ বলিয়া সিদ্ধ করা যাদৃশ অন্যায় আধুনিক ভারতবর্ষীয়দিগের পরাধীনতা হইতে প্রাচীনদিগের বললাঘৰ সিদ্ধ করা তাদৃশ অন্যার। - আমরা এমতও বলি না যে, আধুনিক ভারতবর্ষীরের নিতান্ত কাপুরুষ, এরং সেই জন্য এত কাল পরাধীন। এ পরাধীনতার অন্য কারণ আছে। আমরা তাহার দুইটি কারণ সবিস্তারে এ স্থলে নির্দিষ্ট করি । প্রথম, ভারতবর্ষীয়ের স্বভাবতই স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষারহিত । স্বদেশীর,স্বজাতীয় লোকে আমাদিগকে শাসিত করুক পরজাতীয়দিগের শাসনাধীন হইব না, এরূপ অভিপ্রায় ভারতৰক্ষীয়দিগের মনে আইসে না। স্বজাতীয়ের রাজশাসন মঙ্গলকর ৰ মুখের আকর, পরজাতীরের রাজদণ্ড পীড়াদায়ক বা লাঘবের কারণ, এ কথা তাহদের বড় হৃদয়ঙ্গত নছে। পরতন্ত্রতা অপেক্ষ স্বতন্ত্রতা ভাল,এরূপ একটা তাহাদিগের বোধ থাকিলে খাকিতে পারে, কিন্তু সেটি বোধমাত্ৰ-সে জ্ঞান আকাঙ্কার পরিণত নহে । অনেক বস্তু আমাদিগের ভাল বলিয়া জ্ঞান থাকিতে পারে, কিন্তু সে জ্ঞানে তৎপ্রতি সকল স্থানে আকাজ জন্মে না। কে ন হরিশ্চন্দ্রর দাস্তৃত্ব বা কার্শিালের দেশ: