পাতা:প্রবন্ধ পুস্তক-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভালবাসার অত্যাচার। লোকের বিশ্বাস আছে, যে কেবল শক্ৰ, অথবা স্নেহ দয়া দক্ষিণাশূন্য ব্যক্তিই আমাদিগের উপর অত্যাচার করিয়া থাকে। কিন্তু তদপেক্ষা গুরুতর অত্যাচারী যে আর একশ্রেণীর লোক আছে, তাহা সকল সময়ে আমাদের মনে পড়ে না। যে ভালবাসে যেই অত্যাচার করে। ভালবাসিলেই, অত্যাচার করিবার অধিকার প্রাপ্ত হওয়া যায়। আমি যদি তোমাকে ভালবাসি, তবে তোমাকে আমার মতাবলম্বী হইতে হইবে, আমার কথা শুনিতে হইবে ; আমার অনুরোধ রাখিতে হইবে। তোমার ইষ্ট হউক, অনিষ্ট হউক, আমার মতাবলম্বী হইতে হইবে। অবশ্য ইহা স্বীকার করিতে হয়, যে যে ভালবাসে সে, যে কার্য্যে তোমার অমঙ্গল, জানিয়া শুনিয়া তাহান্তে'তোমাকে অনুরোধ করিবে না। কিন্তু কোন্‌ কাৰ্য্য মঙ্গলজনক, কো কাৰ্য অমঙ্গলজনক, তাহার মীমাংসা কঠিন ; थानक गझाङ्गहे श्रे छानद्व भउ ७रु श्य न|। ७श्ठ बक्इाग्न নি কাৰ্যকৰ্ত্ত, এবং ভাষার ফলভোগী, তার সম্পূর্ণ অধিকার আছে, যে তিনি আত্মমতানুসারেই কাৰ্য্য করেন ; এবং তাহার মতের বিপরীত কাৰ্য্য করাইতে রাজা ভিন্ন কেহই অধিस्नातौं मिहन। शहे रुदण थशिी पिरे छना,6 ििन সমাজের হিন্তাহিত্বেত্তা স্বরূপ প্রতিষ্ঠিত হইয়াছেন; কেবল তাহারই সদসৎ বিবেচনা অভ্রান্ত বলিয়া উহাকে আমাদিগের প্রবৃদ্ভি দমনের অধিকার দিয়াছি; যে অধিকার তাহাক দিয়াছি, সে অধিকার অনুসারে তিনি কাৰ্য্য করাতে কাহারও গ্রন্থি