পাতা:প্রবন্ধ পুস্তক-বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৫৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


89 সাংখ্যদর্শন । পাত্রে একপ্রকার সংযোগ আছে বলা যায়,এ সেক্টরূপ সংযোগ। পুষ্প এবং পত্রমধ্যে দেশব্যবধান থাকিলেও পাঞ্জের বর্ণ বিকৃত হইতে পারে, ইহাও সেইরূপ। এ সংযোগ নিষ্ঠ্য নহে, দেখা যাইতেছে। সুতরাং তাহার উচ্ছেদ হইতে পারে। সেই সংযোগ উচ্ছেদ হইলেই, ফুঃখের কারণ অপমীত হইল । অতএব এই সংযোগের উচ্ছিত্তিই দুঃখনিবারণের উপায়। श्रृंउब्जा३ उहाइँ श्रृङ्गशार्थी । “शत्रु। उक्लो उपूझ्ख्:ि श्रृङ्गशर्ष স্তন্থচ্ছি ত্তিঃ পুরুষাৰ্থ ; (৬,৭০) সাংখ্যের মত এই। উনবিংশ শতাব্দীতে ইহার যথার্থ নিরূপণ জন্য কষ্ট পাইতে হর না। তবে, ইহা বক্তব্য যে, যদি আত্মা শরীর হইতে পৃথক হর, যদি আত্মাই মুখ দুঃথভোগী श्ञ, ग िआणू! (अश्नtभद्र श्राद्र७ ५ीरक, शर्मि (अश् हड्रेष्ठ বিযুক্ত আত্মার মুখ দুঃখাদি ভোগের সম্ভাবনা থাকে, তবে সাংখ্যদর্শনের এ সকল কথা যখার্থ বলিয়া স্বীকার করিতে হইবে। কিন্তু এই “যদি” গুলিন অনেক। আধুনক পজিটিবিষ্ট এখনই বলিবেন, ১ম। আত্মা শরীর হইতে পৃথক্ কিসে জানিতেছ ? শারীরতত্ত্বে প্রতিপন্ন হইতেছে যে, শরীরই বা শরীরের অংশ বিশেষই আত্মা । ২য়। আত্মাই যে স্থখ দুঃখভোগী, তাহারই বা প্রমাণ কি ? প্রকৃতি মুখ দুঃখভোগী নহে কেন ?

  • ৩র ৷ দেহনাশের পর যে আত্মা থাকিষে, তাহ ধৰ্ম্মপুস্তকে বলে ; কিন্তু তদ্ভিন্ন অণুমাত্র প্রমাণ নাই। আত্মার নিত্যত্ব যদি মানিতে হয়, তষে ধৰ্ম্মপুস্তকের আজ্ঞানুসারে ; দর্শনশাস্ত্রেয় আজ্ঞানুসারে মানিষ না।

৪র্থ। দেহধ্বংসের পর জাত্মা থাকিলে, তাছার ষে আবী।