প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:প্রহাসিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৮৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰহাসিনী হেন গুমর নেইকো আমার, স্তুতির বাক্যে ভোলাব মন ভবিষ্যতের প্রত্যাশায় । জানি নে তো কোন খেয়ালের ক্রুর কটাক্ষে কখন বজ হানতে পার অত্যাশায়। ভাগ্য আমার হয় যদি হোক বঞ্চিত, নিরতিশয় করব না শোক তাহার জন্ত্যে ধ্যানের মধ্যে রইল যে ধন সঞ্চিত । আজ বাদে কাল আদর যত্ন নাহয় কমল, গাছ মরে যায় থাকে তাহার টবটা তো । জোয়ারবেলায় কানায় কানায় যে জল জমল ভণটার বেলায় শুকোয় না তার সবটা তো । অনেক হারাই, তবু যা পাই জীবনযাত্রা তাই নিয়ে তো পেরোয় হাজার বিস্মৃতি । রইল আশা, থাকবে ভরা খুশির মাত্রা যখন হবে চরম শ্বাসের নিঃস্থতি ॥ বলবে তুমি, ‘বালাই ! কেন বকচ মিথ্যে, প্রাণ গেলেও যত্বে রবে অকুণ্ঠা ।” বুঝি সেট, সংশয় মোর নেইকো চিত্তে, মিথ্যে খোটায় খোচাই তবু আগুনটা । Ե8