প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:প্রহাসিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৯৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নারীর কর্তব্য চালতারে বিশ্লেষণ করে খরধারে। বেগুন পটোল আলু খণ্ড খণ্ড হয় সে অগুন্তি । তার পরে হাতা বেড়ি খুন্তি ; তিন-চার দফা রান্না সে নানা ফরমাশে— আপিসের, ইস্কুলের, পেট-রোগা রুগির কোনোটা, সিদ্ধ চাল, সরু চাল, ঢেকিছাট, কোনোটা বা মোটা । যবে পাবে ছুটি বেলা হবে আড়াইট । বিড়ালকে দিয়ে কাটাকুটি পান-দোক্তা মুখে পুরে দিতে যাবে ঘুম ; ছেলেটা চেঁচায় যদি পিঠে কিল দেবে ধুমাধুম, বলবে ‘বজজাত ভারি’ । তার পরে রাত্রে হবে রুটি আর বাসি তরকারি ॥ জনাৰ্দন ঠাকুরের পানাপুকুরের পাড়ের কাছটা ঢাকা কলমির শাকে। গা ধুয়ে তাহারই এক ফঁাকে, ঘড়া কঁাখে, গায়েতে জড়ায়ে ভিজে শাড়ি ঘন ঘন হাত নাড়ি

  • >