পাতা:বঙ্কিমচন্দ্রের উপন্যাস গ্রন্থাবলী (প্রথম ভাগ).djvu/৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


එL” t

  • বহুৎ আচ্ছা" বলিয়া গ্ৰী সাহেৰ খোড়া বাহির করিয়া চড়িতে যান, এমন সময় মাণিকলাল আবার ষোড়হাত করিয়া বলিল, “হুজুর। বড় ঘরের কথা— হাতিয়ারবন্দ হইয়া গেলেই ভাল হয় ।”

নুতন নাগর ভাবিলেন, “সে ভাল কথা—জঙ্গী জোয়ান আমি ; হাতিয়ার ছাড়া কেন যাইব ?” তখন অঙ্গে হাতিয়ার বাধিয়া তিনি অশ্বপুষ্ঠে আরোহণ করিলেন । নির্দিষ্ট স্থানে উপনীত হইয়া মাণিকলাল বলিল, “এই স্থানে উতারিতে হইবে । আমি আপনার ঘোড়৷ ধরিতেছি, আপনি গৃহমধ্যে প্রবেশ করুন ।” খ) সাহেব --নামিলেন—মাণিকলাল ঘোড়া ধরিয়া রহিল। খী বাহাদুর সশস্ত্রে গৃহমধ্যে প্রবেশ করিতেছিলেন, পরে মনে পড়িল যে, হাতিয়ারবন্দ হুইয়া রমণীসম্ভাষণে যাওয়া বড় ভাল দেখায় না । ফিরিয়া আসিয়া মাণিকলালের কাছে অস্ত্রগুলিও রাখিয়া গেলেন । মাণিকলালের অারও সুবিধা হইল । গৃহমধ্যে প্রবেশ করিয়া খ৷ সাহেৰ দেখিলেন যে, ভক্তপোষের উপর উত্তম শয্যা, তাহার উপর সুন্দরী বসিয়া আছে—আতর-গোলাবের সৌগন্ধে ঘর আমোদিত হইয়াছে, চারিদিকে ফুল বিকীর্ণ হইয়াছে এবং সম্মুখে আলবোলায় সুগন্ধি তামাকু প্রস্তুত আছে। খ। সাহেব জুতা খুলিয়া, তক্তপোষে ৰসিলেন, বিবিকে মিষ্টবচনে সম্ভাষণ করিলেন—পরে পোষাকটি খুলিয়া রাখিয়া ফুলের পাখা হাতে লইয়া বাতাস খাইতে আরম্ভ করিলেন এবং আলৰোলার নল মুখে করিয়া মুখের আবেশে টান দিতে লাগিলেন । বিবিও তাহাকে দুই চারিটা গাঢ় প্রণয়ের কথা বলিয়া একেবারে মোহিত করিল। তামাকু ধরিতে না ধরিতে মাণিকলাল আসিয়া দ্বারে ঘা মারিল । বিবি বলিল, “কে ও ?” মাণিকলাল বিকৃতস্বরে বলিল, “আমি ।” তখন চতুরা রমণী অতি ভীতকণ্ঠে খী সাহেবকে বলিল, “সৰ্ব্বনাশ হইয়াছে—আমার স্বামী অাসিয়াছেন বঙ্কিমচজের গ্রন্থাবলী —মনে করিয়াছিলাম, তিনি আজ আর আসিবেন না । তুমি এই তক্তপোষের নীচে একবার লুকাও ৷ আমি উহাকে বিদায় করিয়া দিতেছি।” মোগল বলিল, “সে কি ? মরদ হইয়। ভয়ে লুকাইৰ ? ষে হয় আস্থক না ; এখনই কোতল করিব।” পানওয়ালী জিব কাটিয়া বলিল, “সে কি ? সৰ্ব্বনাশ ! আমার স্বামীকে মারিয়া ফেলিয়া আমার অন্নবস্ত্রের পথ বন্ধ করিবে ? এই কি তোমাকে ভালবাসার ফল ? শীঘ্র তক্তপোষের নীচে ষাও । আমি এখনই উহাকে বিদায় করিয়া দিতেছি ।” এ দিকে মাণিকলাল পুনঃ পুনঃ দ্বারে করাঘাত করিতেছিল ; অগত্যা খ৷ সাহেব তক্তপোষের নীচে গেলেন । মোট শরীর, বড় সহজে প্রবেশ করে না, ছাল-চামড়া দুই এক জায়গায় ছিড়িয়া গেল—কি করে—প্রেমের জন্য অনেক সহিতে হয় । সে স্থল মাংসপিণ্ড তক্তপোষতলে বিন্যস্ত হইলে পর পানওয়ালী আসিয়। দ্বার খুলিয়া দিল । ঘরের ভিতর প্রবেশ করিলে পানওয়ালী পূৰ্ব্বশিক্ষামত বলিল, “তুমি আবার এলে যে ? আজ আর আসিবে না বলিয়াছিলে যে ?” মাণিকলাল পূৰ্ব্বমত বিকৃতস্বরে বলিল, “চাৰিটা ফেলিয়া গিয়াছি।” পানওয়ালী চাবি খোজার ছল করিয়া খ৷ সাহেবের পরিত্যক্ত পোষাকটি হস্তে লইল । পোষাক লইয়া জুই জনে বাহিরে চলিয়া আসিয়া শিকল টানিয়া বাহির হইতে চাবি দিল। খী সাহেব তখন তক্তপোষের নীচে মুষিকদিগের দংশন-যন্ত্রণ সহ করিতেছিলেন । তাহাকে গৃহপিঞ্জরে বদ্ধ করিয়া, মাণিকলাল তাহার পোষাক পরিল । পরে তাহার হাতিয়ারে হাতিয়ারৰন্দ হইয়া, তাহার অশ্বপৃষ্ঠে আরোহণ করিয়া মুসলমানশিবিরে তাহার স্থান লইতে চলিল । ബ=ങ്കാ