প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বাংলাদেশ কোড ভলিউম ২৮.djvu/৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৯৯০ vర్సి (৩) উপ-ধারা (২) এর অধীন যদি কোন কোম্পানীর শেয়ার সরকারে বাজেয়াপ্ত করা হয়, তাহা হইলে কোম্পানী আইন, ১৯৯৪ (১৯৯৪ সনের ১৮ নং আইন) অথবা আপাততঃ বলবৎ অন্য কোন আইন অথবা উক্ত কোম্পানীর >R<ff (Articles of Association) CS Tās fāzē «TFE FT GEī Ē ē (৪) এই ধারার অধীন যদি কোন সম্পদ সরকারে বাজেয়াপ্তির আদেশ o প্রদান করা হয়, তাহা হইলে আদালত উক্ত সম্পদ যাহার দখলে বা অধিকারে § আছে তাহাকে উহার দখল উপ-ধারা (৬) এর অধীন নিযুক্ত প্রশাসক বা Q আদালত হইতে এতদুদ্দেশ্যে ক্ষমতাপ্রাপ্ত অন্য কোন ব্যক্তির নিকট, আদালত ് কর্তৃক নির্ধারিত সময়ের মধ্যে, প্রত্যুপণ বা হস্তান্তরের নির্দেশ দিতে পারবে। o o o (৫) যদি কোন ব্যক্তি উপ-ধারা (৪) এর অধীন প্রদত্ত নির্দেশ পালনে-২ অস্বীকৃতি জানান বা ব্যর্থ হন, তাহা হইলে আদালত উক্ত সম্পদ যে জেলায় - অবস্থিত সেখানকার পুলিশ সুপারকে উক্ত সম্পদের দখল লাভের উদ্দেশ্যে উপধারা (৬) এর অধীন নিযুক্ত প্রশাসককে পুলিশী সহায়তা প্রদানের নির্দেশ দিতে পরিবে, একদিলো। (৬) সরকার, সরকারী গেজেটে প্রজ্ঞাপন দ্বারা, উহার বিবেচনায় উপযুক্ত কোন সরকারী কর্মকর্তাকে এই ধারার অধীন বাজেয়াপ্তকৃত সম্পদের প্রশাসকের o (৭) সরকারে বাজেয়াপ্তকৃত সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ ও নিস্পত্তির জন্য সরকার যেরূপ নির্দেশ দান করিবে উপ-ধারা (৬) এর অধীন নিযুক্ত প্রশাসক লেবান হওকত কেলি।

  • - •)

৩৬। (১) মহা-পরিচালক বা তাহার নিকট হইতে এতদুদ্দেশ্যে সাধারণ বা পরোয়ান ব্যতিরেকে বিশেষভাবে ক্ষমতাপ্রাপ্ত কোন কর্মকর্তা বা পুলিশের উপ-পরিদর্শক বা তদূৰ্ব্ব "সরি কোন কর্মকর্তা বা কাইমসের পরিদর্শক বা সমমান সম্পন্ন বা তদূৰ্ব্ব কোন কর্মকর্তা, বা বাংলাদেশ রাইফেলস এর অধঃস্তন বা তদূৰ্ব্ব কোন কর্মকর্তা বা কোষ্ট গার্ড বাহিনীর কোন সদস্যেরা এইরূপ বিশ্বাস করিবার কারণ থাকে যে, এই উল আলকেন অপৰাধনে সেটত ইয়াছে জবা Q so o - “পুলিশের উপ-পরিদর্শক” শব্দগুলি “পুলিশের পরিদর্শক” শব্দগুলির পরিবর্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) আইন, eço ২০০০ (২০০০ সনের ৩৯ নং আইন) এর ১৮ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত।

  • “বাংলাদেশ রাইফেলস্ এর অধঃস্তড়ী বা তদূধর্ব কোন কর্মকর্তা বা কোষ্ট গার্ড বাহিনীর কোন সদস্যের" শব্দগুলি “বাংলাদেশ রাইফেলস এর অধঃস্তভূ বা তদূধর্ব কোন কর্মকর্তার” শব্দগুলির পরিবর্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) আইন, ২০০০ (২০০০ সনের ৩৯ নং আইন) এর ১৮ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত। “আইনের” শব্দটি “অধ্যাদেশের” শব্দটির পরিবর্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) আইন, ২০০০ (২০০০ সনের ৩৯ নং আইন) এর ১৮ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত।