পাতা:বাংলা শব্দতত্ত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর -দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/১৪৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


&P ভাষার ইঙ্গিত 〉)● বা “গরিবকে দানমান করা উচিত” এ একেবারে অচল-হিংসেমিংসে করা যায় কিন্তু ভক্তিমক্তি করা যায় না, তেমন তেমন স্থলে খোচামোচা দেওয়া যায় কিন্তু আদরমাদর নিষিদ্ধ। অতএব টয়ের স্বায় ফ ও ম প্রশান্ত নিরপেক্ষ স্বভাবের নহে—ইহা নিশ্চয় । তারপরে, কতকগুলি বিশেষ কথার বিশেষ বিরুতি প্রচলিত আছে । সেগুলি সেই কথারই সম্পত্তি । যেমন :–পড়েহড়ে, বেছেগুছে, মিলেজুলে, খেয়েদেয়ে, মিশেগুশে, সেজেগুজে, মেখেচুখে জুটেপুটে, লুটেপুটে, চুকেবুকে, বকেৰকে । এইগুলি বিশেষ প্রয়োগের দৃষ্টাস্ত । উল্লিখিত তালিকাটি ক্রিয়াপদের । এখানে বিশেষ্য পদেরও দৃষ্টান্ত দেওয়া যাইতে পারে ;–কাপড়চোপড়, আশপাশ, বাসনকোসন, রসকস, রাবদাব, গিন্নিবান্নি, তাড়াহুড়ো, চোটপাট, চাকরবাকর, হাড়িকুড়ি, * ফাকিৰ্জুকি, আঁকজোক, এলাগোলা, এলোথেলো, বেঁটেথেটে, খাবারদাবার, ছুতোনাত, চাষাভুষো, + অন্ধিসন্ধি, অলিগলি, হাবুডুবু, নড়বড়, হুলস্থূল । এই দৃষ্টান্তগুলির গুটিকয়েক কথার একটা উন্টাপাণ্টা দেখা

  • সংস্কৃত ভাষায় কুণ্ডীশদের অর্থ পত্রিবিশেষ, সম্ভবতঃ ইহা হইতে হাড়িকড়ি শখের কঁড়ি উৎপন্ন—এই সকল তালিকার মধ্যে এমন আরো থাকিত্তে পারে যে স্থলে এই দোসর শব্দগুলিকে অর্থহীনের কোঠায় ফেলা চলিবে না।

+ "कूtछांनांठi" श्रहक “छूठी” की निब्रभ अळूनांtब्र छूट्ठ1 हहेब्रांtछ, 4बई “চাৰা ভুষো" শব্দের ভূযা" কী কারণে "ভুষো" হইল পূৰ্ব্বেই তাহ বলিয়াছি। عty