পাতা:বাংলা শব্দতত্ত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর -দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/১৯৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अकूश्वांन-5र्फ़ Stఏ বাংলায় আমরা বলি নাছোড়বান্দা। কিন্তু লেখায় সব জায়গায় ইহা চলে না। আমাদের একজন পত্ৰলেখক দৃঢ়াগ্রহ’ শব্দ ব্যবহার করিয়াছেন । কিন্তু ‘আগ্রহ’ শব্দে, অন্তত বাংলায়, প্রধানত একটি মনোধৰ্ম্ম বুঝায়। নিষ্ঠ শব্দেও সেইরূপ । Persistent শব্দের অর্থ, যাহা নিরস্তর লাগিয়াই আছে । ‘নিৰ্ব্বন্ধ' শব্দটিতে সেই লাগিয়া থাকা অর্থ আছে ; দৃঢ়নিৰ্ব্বন্ধ’ কথাটা বড়ে বেশি অপরিচিত। এখানে কেবলমাত্র নিত্য বিশেষণ যোগে ইংরেজি শব্দের ভাব স্পষ্ট হইতে পারে । আমাদের আলোচ্য ইংরেজি প্যারাগ্রাফে একটি বাক্য আছে “among them are many species of birds’;-winto একজন ছাত্র এই species শব্দকে "উপজাতি প্রতিশব্দ দ্বারা তর্জমা করিয়াছে । গতবারে ‘প্রতিশব্দ’ প্রবন্ধে আমরাই speciesএর বাংলা উপজাতি’ স্থির করিয়াছিলাম অথচ আমরাই aatta tra many species of birds'ts afatatsälz পক্ষী বলিলাম তাহার কৈফিয়ৎ আবশুক। মনে রাখিতে হইবে এখানে ইংরেজিতে species পারিভাষিক অর্থে ব্যবহার করা হয় নাই। এখানে কোনো বিশেষ একটি মহাজাতীয় পক্ষীরই উপজাতিকে লক্ষ্য করিয়া species কথা বলা হয় নাই । বস্তুত কীটের যে সব শক্ৰ আছে তাহারা নানা জাতিরই পক্ষী--কাকও হইতে পারে শালিকও হইতে পারে, শুধু কেবল কাক এবং দাড়কাক শালিক এবং গাঙশালিক নহে । বস্তুত সাধারণ ব্যবহারে