পাতা:বাংলা শব্দতত্ত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর -দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/২০২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


)\br শব্দতত্ত্ব ধারণ। নিরামিষভোজীকে গৃহস্থ পরিবেষণ করবার সময় ঝোল আর র্কাচকলা দিয়ে মাছটা গোপন করতে চেয়েছিল হঠাৎ সেটা গড়িয়ে আসবার উপক্রম করতেই তাড়াতাড়ি সেরে নিতে গেল, নিরামিষ পংক্তিবাসী ব্যাকুল হয়ে ব’লে উঠল “ষে আপসে আতা উসকো আনে দেও।” তোমাদের কোনো কোনো লেখায় এই রকম আপ সে-আনেওয়ালাদের নির্বিচারে পাতে পড়তে দিয়ে, নিশ্চিত হবে উপাদেয়, অর্থাৎ ইণ্টারেষ্টিং। এবার পত্র দুটোর প্রতি মন দেও। এইখানে বলে রাখি, ইংরেজিতে যে-চিহ্নকে অ্যাপসট্রফির চিহ্ন বলে কেউ কেউ বাংলা পারিভাষিকে তাকে বলে “ইলেক”, এ আমার নতুন শিক্ষা। এর যাথার্থ সম্বন্ধে আমি দায়িক নই। এই পত্রে উক্ত শব্দের ব্যবহার আছে । ৮ই ডিসেম্বর, ১৯৩২ ।