পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8৬ এখন হয়েছ নেয়ে, কোন বা বিষয় পেয়ে, ধেয়ে হাত দিতে এস অঙ্গে,॥ ভণে দাস রামপ্রসাদ, হায় এ কি পরমাদ, কাজ কি হে কথার প্রসঙ্গে । সময় উচিত কও, দোষ আছে পাছে মন ভাঙ্গে ॥ ওহে নূতন নেয়ে । ভাস্ক নৌকা চল বেয়ে ॥ হুকুল রইল দূর, ঘন ঘন হানিছে চিকুর, ' কেমন কেমন করয়ে দেয়, মাঞ্চ যমুনায় ভাসে খেয়া, শুন ওহে গুণনিধি, নট হক ছন দধি, কিন্তু মনে করি এই খেদ । কাণ্ডারী যাহার হরি, যদি ডুবে সেই তরী, মিছা তবে হুইবে হে বেদ ॥ যমুনা গভীর ভাঙ্গ তরী, অবলা বাল কুশোদরী, প্রাণরক্ষার তুমি মাত্র মূল। অবসান হলো বেল, একি পাতিয়াছ খেলা, কটিং পারে চল, প্রাণ নিতান্ত আকুল ॥ কহিছে প্রসাদ দাস, রসরাজ কিবা হাস, কুলবধূর মনে বড় ভয়। প্রথম বয়স রাই রসরক্ষিণী, ঝলমল তমুরুচি স্থির সৌদামিনী । রাইবদন চেয়ে ললিতা বলে, রাই আমার মোহনমোহিনী ॥ রাই যে পথে প্রয়ণ করে, মদন পলায় ডরে ॥ কুটিল কটাক্ষশরে, জিনিল কুসুমশরে। কিবা চাচর সুন্দর কেশ । ” সখী বকুলে বানাইল বেশ ॥ তার গন্ধে অলিকুল, হুইয়া আকুল, কেশে করিছে প্রবেশ ॥ নব ভানু ভালেতে নিবাস, মুখ পদ্ম কোরেছে প্রকাশ। উত্ত্বে কলিকা যে আছে, কি জানি ফুটে পাছে, সখীর সৃদয়ে তরাস ॥ ভৰে পূৰ্চিত্র কোলে তার, লগল্প শোভা হােল আর। কোন রূপে পার হও, . বাঙ্গালীর গান। একি শ্রীবদন ছবি, উপরেতে চাদ রনি, সদন মদন রাজার ॥ অলকা কোলে মতিহার, কিবা বিচিত্র ভাব বিধাতার। যেন রাহুর মুখমাজে, বসন রাজি রাজে, চাদেরে করেছে আহর । আঁখি লোল অনুমানি এই, চাদে হরিণশিশু আছে যেই। তনু সুধায় লুকায়েছে, ব্যাধে বধে পাছে, দিগ নিহারই সেই ॥ চারু অপাঙ্গ কাম কামান, নাসাতিলক শর খরসান । সেই তামসুন্দর, মানস মুগবর, ভাবে বুঝি করিছে সন্ধান ॥ দর দর দর ঝরত লোর, চর চর চর তনু বিভোর, কবহঁ কবর্হ করত কোর, থোর থোর দোলন । রাণী বদন হেরি হেরি, হসিত বদন বেরি বেরি, চোরি চোরি থোরি থোরি মন্দ মন্দ বোলন ॥ ঝুম্বর ঝুনুর ঘুমুর নাদ, কিঙ্কিণী রব উভয় বদ, পদতল স্থলকমল নিন্দি, নখ হিমাকর-গঞ্জন । কলিত ললিত মুকুতড়ার, মেরু বিকচ হিমকরাক্টর, বিবুধ তটিনী বিশদ লীর, ছলে তমুরঞ্জন ॥ কষিত কনক বিমল কান্তি, মনহি তাপ করত শাস্তি, তনু-তিরপিত ময়ন-সুখ, কলাবনিকর ভঞ্জন । ক্ষীণ দীন প্রসাদ দাস, সতত কাতর করুণাভাষ, বারয় রবি-ভনয়-শঙ্কা, মদন-মথন অঙ্গন ॥ শিব-সঙ্গীও | বম বম্ বম্ ভোলা। মাগী যেমন, মিনূসে তেমন, তেমি চুটী চেলা ॥ আরোহণ বৃষোপটে, সিঙ্গে ডম্বর করে, মুখে বলে হরে হরে, রুদ্রাক্ষমালা ॥ জটাতে কুলুকুলুধ্বনি, বিরাজিত সুরধুনী। মস্তকেতে মণি ফণী, অৰ্দ্ধচন্দ্রভাল ।