পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১৮৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নিধুবাবু। তৈবলী - কী?যালী । এই কি মনে প্রাণ করিয়ছিলে জ্বালাবে বিরহানলে । সাধের পিরীত, তোমার সহিত, করিয়ে ভাসি, নয়ন-সলিলে। নয়ন-নিকটে রাখি, সাধ দিবানিশি দেখি, নয়ন অন্তর, থাকি নিরস্তর, তোমার মতে বিচার করিলে। Φαίω---- বেহাগ-জলদতেতালা | বরই যাতন, শুন রে সম্প্রনি, সহে না। (আর) ন অতি চঞ্চল, নয়ন সজল, তথাপি অনল নিলে না। 萤 ইলে কবে মিলন, হেরিব বিপূবদন, ঘুচিবে যন্ত্রণ। উদয় হইবে সুখ রবে না অসুখ, একি হবে পূরিবে বাসন । বেহাগ- জলদতেত{ল । রীতি করি প্রাণ, এই লাভ হলে আমার। দেখাইয়ে হখ মুখ দিলে খভার । অবলা সরলা আগে, না করি বিচার। মজিল দেখ বিনয়-ছলেতে তোমার। கம்மது বেহাগ—জলদতেতালা । আইলে হে অধীনী জন সদনে। তামার বিরহে প্রাণ, আছে কিনা আছে 으, এই বুঝি দেখিবরে হয়েছে মনে। মনের মানস বিধি, পূৰ্বাইবে পাব নিধি, হলো এতদিনে । গগাগুণে যদি পুন, হইল মুখ মিলন, চ্ছেদ না হয় যেন, সাধ এক্ষণে । Φαία Εμφυπωφ ঝিঝিট-খাম্বাজ-মধ্যমান। চলাননে কি শোভা, কমল নয়ন। ই ভূঙ্গ ভঙ্গি করি, করে মধুপান। কেশ বেশ কি তাহার, কিবা নীরদ আকার, " শিখ তাই দেখি, হরিষে অজ্ঞান। እጫ শৰণে শোভে কুণ্ডল, চমকে অতি চঞ্চল, কিরণ ঝলকে তায় দামিনী সমান। বেহাগ—জলদত্তেতালা | গঞ্জনে নিরঞ্জন, হয়েছে নয়নে। সেই নীর হার হতে, যদি হিংস না করিত কোন জনে ॥ করিতে প্রেম ভঞ্জন, আছে কত শত छन, ত্যজিতে অসত জন, বলে বিনে প্রয়োজন প্রিয় জনে ॥ সবৃফবদা—জাড় । কোথরে চলিলে হে প্রাণ, মম মানন্তরে। দুঃখের উপরে মুখ, দুখ দিয়ে মোরে । যদি অনেক দিনস্তে, পাইলাম প্রাণকান্তে, প্রাণ গেলে নাহি কয়, বল না কে কারে ॥ আপন ভাবিয়ে নাথ, অভিমানে কহি কত, ইথে এত বিপরীত, ভাবিলে অন্তরে। বেহাগ—জাড়াঠেকা । তোমারে কে জানে প্রাণ, যে জানে সেই সে তুর্থী। তোমারে জানিতে, সাধ যায় চিতে, কদাচিতে নহে সে দুঃখী। তোমারে যে নাহি জানে, তারে কেহ নাহি জানে, জেনেছে যে জন, তুলিতে কখন, সে কি পারে নাহিক দেখি ৷ 6षश्tर्ग-थांढ़ांह#रु । অহঙ্কার কারোপর, করিব কে সহে। যে করিল সোহাগিনী, সেই বিনে আর কেহ নহে। আপন নহে ৰে জন, তারে কিবা প্রয়োজন, সেই জনপ্রিয় জন মুখে মুণী খোজে। বেহাগ—জলদতেতাল। কি সন্দেহ কর প্রাণ, नि:जरभइ ब्रट् । আর কাহারোপর আমার নাহি মোহ ।