পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হরু ঠাকুর । গগনেতে তারাগণমাঝে, চাঙ্গ যেন শোভা পায় ॥ পরচিতেন । সষ্ট কেন বা আপন খেয়ে, আইলাম যমুনায়। হেরে পালটিতে আঁধি, নাহি পারি সখি রঘু কহে একি দায় ॥ வாத मश्फु| | l কি কাজ আর বজ্রভূবনে, হায়! সে নীলরতন, দরশন বিহনে। রোয়ে রোয়ে চিত, হয় চমকিত । কেঁদে কেঁদে প্রাণ উঠে সম্বনে ॥ চিতেন । হায়! যদবধি হরি গ্যাছে মধুপুরী, অনাথিনী করি গোপীগণে । সেই হোতে হার, আছি মৃতপ্রায়, । পরাণ গিয়ছে তাহারি সনে ॥ অম্ভবা | থায় ! কোথা গেলে পাব, সে প্রাণ মাধব কিরূপে মিলিব তার চরণে। গৃহ পরিবার, সকলি আসার, সেই মনোহর নগর বিনে ॥ চিতেন। হায়! রজনী কি দিন, হেয়ে জ্বালাতন, এই আরাধন, করি গেমনে। হোয়ে বিহঙ্গম, যাই সেই ধাম, দেখি গিয়ে খাম বংশীবদনে ॥ অন্তরা । হায়! যে শুমসোহাগে, যার অনুরাগে, ' আমি সোহাগিনী সকল স্থানে। যে গুমের গুণ, দেব ত্ৰিলোচন, সদা করেন গান, পঞ্চ বদনে ॥ চিতেন । হেন প্ৰাণেশ্বর, ছেড়ে গাছে মোর, । কি কাজ এ ছার দেহ ধারণে। চণ সবে মিলি, হোয়ে গলাগলি, ঝুঁপি দিব যমুনাজীবনে ॥ 廳 ס\לל অন্তরা । 嘯 .হায়! এই যে মুখের, গোকুলনগরে, হেয়েছে আঁধারে শ্রাম কারণে । কদম্বের তল, বিহারের স্থল, হেরে অঁখিজল, বহে সঘনে ॥ চিভেন । হায়! বটায়ে প্রমাদ, গিয়েছে বিনোদ, এখেদ সম্বর রহি কেমনে। হে যদুনন্দন, দিয়ে দরশন বাচাও প্রাণে ॥ মহড়া । যদি খাম না এলো বিপিনে, তবে কি হবে সজনি। লম্পট স্বভাব তায় জানি ওগো বৃন্দে, এই সন্দ হয়। সে গোবিন্দ যে আমারো বাধ্য নয়। বুঝি করে। সহবাসে পেহায় রজনী। চিতেন । ছিল যে সঙ্কেত হরি আসিবে নিশ্চয়। বিলম্ব দেখে তায় হতেছে সংশয় ॥ বহু শ্ৰমে কুমুমেরি হার, গথিলাম সখি, গলে দিব কার। যদ্যপি বিষ্কৃত হেয়ে থাকে গুণমণি ॥ অন্তরা । কৃষ্ণপ্রাণ আমি, আমার অনন্য গতি । বোলে কি জনাব তোমায়, তুমি কি জান না দৃতি। পরচিতেন । ক্রমেতে হোতেছে যত নিশি অবশেষ। শ্রাম বিনে ততই বাড়িতেছে ক্লেশ। আসারো আশয়ে এতক্ষণ । রয়েছি করিয়ে পথ নিরীক্ষণ। মাধব না এসে যদি, এসে দিনমণি ॥ बश्फु । তাম তিলেক দাড়াও, হেরি চিকণ কাল বরণ। শ্রাম, তিলেক দাড়াও । বিপদভঞ্জন,