পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


হরু ঠাকুর। भठ्छु । ইথে কার অসাধ কমলিনি ! | বল শুনি ইগোরাধে হেরিতে নীলকান্তমণি ৷ আমরা তো সব তব আজ্ঞাবৰ্ত্তিনী। যাবে কৃষ্ণদর্শনে এতো শ্বস্ব করে মানি ॥ চিতেন । কায়ুমন প্রণে যার পদে সমর্পণ। সে ধনে হেরিতে আমাদের আলষ্ঠ কখন ॥ অন্তর । যদ্যপি কাল বল তুমি, আমরা প্রস্তুতে এখনি । i திறந்து இம் भश्ष्याः । সখি, শ্ৰামৰ্চাদে করলো মন । কোন ছলে যেন এসেন কদম্বতলে, i ললিতত্রিভঙ্গরূপে, হেরে প্রাণে যে নাচে না ৷ মহড়া । পিরিতের ও কথা কোয়ে ত ফুরায় না। প্রাণ যত কও, ততই উপজে কতই, পরিসীমা হয় না। মহড়া । তুমি কার প্রাণ, করি দেহশৃষ্ঠ এলে, । হেরে যে রূপে, বাসনা করে। করি পরিত্যাগ আপনে প্রাণ, সেইখানে রাখি তোমারে। চিতেন । পদার্পণে যে কমলে পুর্ণিত করিলে বসুমতী। জ্ঞানে হয় প্রাণ তেমতি ॥ নয়নে কটাক্ষে কুমুদে প্রকাশ, পাইতে হে তব অম্বরে। मश्प्लां । এই ভয় সদা মনেতে, বিচ্ছেদে বা ঘটে পিরীতে ॥ হোতেছে এখানে নৃত্নো যতনে, কি হলো কি হবে শেষেতে ॥ δ & Σ. চিতেন । প্রাণ মণ অনুরাগে, পিরীতি সোহাগে, আছি আলাপনেতে | বিনি আবহনে ও বিধুমুখে পাই সদা দেখিতে। হেন ভাবে থাকে নিরবধি, তবে যাবে প্রাণ মুখেতে ॥ মহড়া। ওহে বার বার আর কেন জালাও আমায়ু । বুঝিয়াছি তোমারো যে মনের আশয় ॥ তুমিত আমার তাহে গিয়াছ কোথায়। চিতেন । মুখে থাক মনে রাখ এখন এই চাই। তব গুণ গাই, কোথাও ন যাই। তুমি যত ভাল বাসে ভাবে বুঝা যায়। অন্তর । ওহে তোমারে ও গুণে, প্রাণে থাকুকে তোমায়। ও বাতাস যেন হে, না লাগে কারে গয় ॥ চিতেন। *獸 প্রিয়তম কোথ। পাব আর । হেন অসাধারণ গুণ আছে কার ॥ বিবিধ রূপেতে আমি জেনেছি তোমায়ু ॥ অন্তরা । যদি নারী হয়ে কেউ প্রেম অভিলাষ। তোমার মতন রসিক পেলে পুরে তারো আশ ৷ চিতেন । সে রূপে-মুখে সে ভাসে বিধিবিধানে। ক'ব কেমনে সেই সে জানে। এক মুখে স্তুর গুণে কোলে না ফুরায় । আন্তর" | ওহে যতদিন দেহে প্রাণে থাকিবে আমার। ঘুষিব ঘোষণা আমি নিয়ত তোমার। চিতেন । তুমি যেমন মুজনে রসিকেরো শেষ। জানি সবিশেষ নাহি দোষে লেশ। তোমারে রীতে চরিতে জাগিছে হিয়ায় ॥ অন্তরা । তুমি ঘুণগ্রেতে জানো নাকে শঠতা কেমন। আহ৷ মরি মরি তব কি সরলে মন ॥