পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দেওয়ান নন্দকুমার। =ആുജ দে ওয়ান নন্দ কুমার রায়, দেওয়ান রঘুনাথ বায়েব জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা ছিলেন । সঙ্গীত বচন|্য ইনি? প্রসিদ্ধ ছিলেন। শক্তি-বিসযক অনেক সঙ্গীত ইনি রচনা করেন । ভৈরবী—ঠেকা। ভুবন ভুলাইলি গো ভুবনমোহিনী । মূলাধারে মহোৎপলে বীণ-বাদ্য-নিনাদিনী। শরীরে শরীরে যন্ত্রে,স্বযুয়াদি ত্রয় অন্ত্রে, গুণভেদে মহামস্ত্রে, তিনগ্রামসঞ্চারিণী । আপারে ভৈরবীকার, ষড়দলে শ্রীরাগ আর, মণিপুরেতে মল্লার, বসন্তে সৃৎ-প্রকাশিনী। শিশুদ্ধে হিল্লোল সুরে, কর্ণাটক আজ্ঞাপুরে, তাল মান লয় সুরে, ত্রিসপ্ত সুর ভেদিনী । মহামায়া মোহ-পাশে, বদ্ধ কর অনায়াসে, তত্ত্ব লয়ে তত্ত্বকাশে, স্থির আছে সৌদামিনী। শ্রীনন্দকুমার কয়, তত্ত্ব না নিশ্চয় হয়, তপ তত্ত্ব গুণত্রয়, কাকি মুখে আচ্ছাদিনী ॥ বাগেশ্ৰী-ঠেকা । ভাব বসে, মদনান্তক-রমণী মম মানসে। নাহি পৰ্য্যটন শ্রম, প্রেম গন্ধ ভাব কুসুম, তে ধূপ দীপ আদি প্রণ, আছয়ে তব পাশে । সহস্রারামৃতে পাদ্য অর্থ দেহ মন, ভাবরূপ নবেদ্য তায় কররে অর্পণ, কাম আদি ছয় জন, বলীর এই নিরূপণ ; জ্ঞান-কুপাণে ছেদন, কর অনায়াসে । হোম কুণ্ড কর শ্রদ্ধা, সমিধ সমাধি, ব্ৰহ্ম-অগ্নি জ্বাল তায় মন এই বিধি, হোতা হও ত্যজি কৰ্ম্ম, দ্রাঢ্য ঘৃতে রাখি মৰ্ম্ম, আহুতি দাও ধৰ্ম্মাধৰ্ম্ম মনরে হেসে ॥ মূলতনি-একতালা । কালীপদসরোজ রাজে সহজে ভৃঙ্গ হওনা মন । {" মত্ত হও মকরনে মজে সদানন্দে রওনা মন "111র বহিছে তার চরণে স্মরণ লওনারে মন। পদে লিপ্ত হও, ত্বরায় যাও,

উদর পুরস্কা খাওন মন ॥ s শিরসি পদ্মে পাদপদ্মে পদ্মে পদ্ম বিকসিত। তাহে রিপু ছ'জন করি চরণ ষটপদ হও ত্বরিত। উড়িতে শক্তি নাই যদ্যপি, তত্ত্বপথে ধাওনা রে মন | ঈষৎ উড়ে উড়ে মায়ের পদে, পড়ে গুন গুন গুন গাওনা মন ॥ যুগ্মপদ্ম ত্যজিয়ে বদ্ধ মায়-কেতকী ফুলেতে। তাতে কেবল ধ্বন্ধ গন্ধ মাত্র অন্ধ অত্র রেণুতে। জড়িত পক্ষ কণ্টকে মন তথয় বিরস হওনা রে মন ॥ কি মুখে রও নীরসপুষ্পে কি রস পাওকওনা ম' বিষয় শিমুল মুকুলে মন ব্যাকুল চিত্ত, হয়েছে ব্যর্থ অর্থচিন্তা সতত নিত্য অর্থ ভুলেছ। কুমার বলে ওরে ভূঙ্গ চুরাশা ভঙ্গ হওন । মায়ের পদপদ্মে আশাবাস করত যায়ন মন ॥ ভৈরবী—ঠেকা । কবে সমাধি হবে শ্রামাচরণে । অহংতত্ত্ব দূরে যাবে সংসার বাসন সনে । উপেক্ষিয়ে মহত্তত্ত্ব, ত্যজি চতুৰ্ব্বিংশতত্ত্ব । সৰ্ব্বতত্ত্বাতীত তত্ত্ব, দেখি আপনে আপনে। জ্ঞানতত্ত্ব ক্রিয়া তত্ত্বে, তত্ত্ব হবে পরতত্ত্বে, কুণ্ডলিনী জাগরণে ॥ শীতল হইবে প্রাণ, অপানে পাইব প্ৰাণ, সমান উদান ব্যান, ঐক্য হবে সংযমনে। কেবল প্রপঞ্চ পঞ্চ, ভূত পঞ্চময় তঞ্চ, পঞ্চে পঞ্চেন্দ্রিয় পঞ্চ, বঞ্চনা করি কেমনে । করি শিরা শিৰযোগ, বিনাশিবে ভব-রোগ, দূরে যাবে অন্য ক্ষোভ, ক্ষরিত মুধার সনে। | মুলাধারে বরাসনে, ষড়দল লয়ে জীবনে, মণিপুরে হুতাশনে, মিলাইবে সমীরণে। কহে শ্রীনন্দকুমার, ক্ষমাদে হেরি নিস্তার, পার হবে ব্রহ্মম্বার, শক্তি আরাধনে ॥ পরমাত্মা আত্ম-তত্ত্বে,