পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


56; о বাঙ্গালীর গান । এখন সময়গুণে এই দশা হয়েছে। মনে অধৈৰ্য্য হ’য়েন, ওগো ব্রজাঙ্গন, ছিল দাসী যে, হোলে রাণী সে, কৃষ্ণ অঙ্গন, কুষ্ণ এখন পাবে না। রাধ রাজনন্দিনীর এখন কপাল ভেঙ্গেছে। জনৃতাম আমাদের কৃষ্ণধন, শরমে মরমে মরি, ক'ব কার কাছে, বিক্রীত রাধার প্রেমেতে । যে জন আখি আড় হোতোনা, গিয়ে দেখলাম শ্রামের এখন সে ভাব নাই, তারে দেখতে এসে এত লাঞ্ছনা। রাইকে নাহি মনেতে । আমরা পথে বসে কাদি আজ, মপুরাজ্যেশ্বর বংশীধর হয়েছেন এখন। এমন কত কান্না তোদের রাজা কেঁদেছে | রাজছত্র শিরে তার দরশন পাওয়া ভার, কপাল মন্দ দ্বারি হে, গোপিকায় নাহিক স্মরণ । বৃষ্ণের নিন্দ করা উচিত নয় । তিনি ন'ন রাধাকান্ত, হয়েছেন কুত্তাকান্ত, দশা যখন বিগুণ হয়, বন্ধু লোকে মন্দ কয়, রাধার প্রণাস্তে ক্ষতি কি তার বলন। রাধার চরণে যার লেখা নাম, காயம்_ற এখন তেদের পয়ে ধরায় সেই শাম । ভাবতে বলগে যা তোদের রাজাকে, এমন অভিমন কতবার ভিক্ষে লয়েছে। কথা কইতে গেলে, নয়ন জলে অঙ্গ ভেসে যায়। রাধা-রাজার দাসী, এ রাজ্যে আসি, সাধ করে কি সই চাদ পানে চেয়ে কঁাদি। কুঞ্জে এলন কালাচাদ, পুৰ্বল ন| মন সাধ, গগন-চাদ হ’ল তায় বিবাদী। সজনি, ন জানি, | কঁদিতেছে দয়জায়। হলেম গুমের পয়ে কি অপরাধী। এমন নিষ্ঠুর ভূপতি, আমাদের শ্ৰীমতী, কভু নয় ; চাঁদে চাদে আছে ঐক্য করে, পেয়ে কাঙ্গালিনী ভয়, অন্তঃপুরে গিয়ে রয়, করে এ পক্ষে পক্ষপাত, আমরা দয়াল রাজ্যে বাস করি, | সে পক্ষে রাধানাথ, চাইলে উলটে ভিক্ষে দে যেতে পারি। রাধার পক্ষে কৃষ্ণ কৃষ্ণপক্ষ। মনে করতে বল তোদের রাজাকে, পূর্ণচন্দ্রোদয় হলে গ্রহণ হয়। . বুঝি আপনার সেদিন এখন ভুলে গিয়েছে। আমার শুমচাদের গ্রহণ সৰ্ব্বসঙ্গাদী ॥ _ _ এক বই সখার দেখা কোথা পাই। | দেখবে কেমন মুন্দরী সে কুবুজা। তোদের রাজা যে, নিজে বঁকা সে, নিশিতে শশী আসিতে কে হ’রে নিল গোবিন্দে । নতন রাণী যে, হোয়েছে বাক কি সোজা ॥ সারণি অরণি' A

  • থাকৃবে যতক্ষণ গগন-চাদ, ততক্ষণ কালাচাদ,

க আসবে সই, মনে জানি। গিয়াছিলাম আশা করে আনতে মাধবেরে, । সে আশাতে সই এই বুঝি নিরাশ হই, সে আশা পূর্ণ হ’ল না। কোথায় লুকলি বল সে কৃষ্ণনিধি ॥ ব্রজে এলন কালচাদ, হ’ল হরিষে বিষাদ, কুঞ্জে কালাচাদের উদয় হ’লে, কৃষ্ণের আর আসার আশা কোরে না। রাধাবদন চাদের শোভা হ’ত । যাতে বঁচে রাই, কর সেই মন্ত্রণ চদ লুকাবে চাদ অভাবে, রাধায় বুঝয়ে সই চল রাখি সকলে। সে চাদ ভেবে এ চাদ হ’বে অস্তগত | হ’লে শ্ৰীদামের শাপাস্ত, পুন সেই শ্ৰীকান্ত, নিশিতে শশী যদি না আসে, আসিবেন এই গোকুলে। যুর দিবসে দ্বিগুণ তাপ।