পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৪৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


و یا اج যেন মা-হীন কন্তে, তিন দিনের জন্তে, এলে| হে হিমালয় । " মুখে করি হাহারব, ছিলেষু যেন শৰ হে গৌরী মুংদেহে এসে জীবন দিলে ॥ মঙ্গলার মুখে কি মঙ্গল শুনতে পাই । উমা অন্নপূর্ণ হেয়েছেন কাশীতে, রাজরাজেশ্বর হেয়েছেন জামাই। শিবে এসে বলে মা, শিবের সে দিন আর এখন নাই । যারে পাগল পাগল বোলে, বিবাহের কালে সকলে দিলে ধিক্কার । এখন সেই পাগলের সল, অতুল বিভব, কুবের ভাণ্ডর তর । এখন শ্মশানে মশানে বেড়ায় না মেনে, আনন্দকাননে, যুড়ালার ঠাই ॥ ফিরে এলে গিরি কৈলাসে গিয়ে, তত্ত্ব না পাইয়ে যার । তোমার সেই উমা এই, এলে সঙ্গে শিবপরিলার এখন যন্ত্রণা এড়ালে, ওহে গিরিরাজ, গঞ্জন দূরে গেল । * আমার মা কৈ, মা কৈ” বোলে উম ঐ, ব্যগ্র হয়ে দাড়ল । বলে তোমার আশীৰ্ব্বাদে আছি মা ভাল, দুখিনীর দুখ ভাবতে হবে নাই। হোকু হোকু হোকৃ, উমা সুখে রেঞ্চ, সদাই হোতো মনে। ভিখারীর ভাগ্যে, পড়েছেন দুর্গে তাঁর ভাগ্যে এমন হবে কে জানে । দুহিতার মুখ শুনিলে গিরি, ধে মুখ হয় আমার। আছে যার কন্ঠ, সেই জানে, অন্তে কি জানিবে আর । খদি পথিকে কেউ বলে, উমা ভাল আছে তোর । যেন করে স্বর্গ পাই, অমৃনি ধেয়ে যাই, আনন্দে হোয়ে বিভোর । শুনে আনন্দময়ীর আনন্দসংবাদ, আনন্দে আপনি আপন ভুলে যাই । ওগো উমার মl" f বাঙ্গালীর গান । এই খেদ হয়, সকল লোকে কয়, শ্মশানবাসী মৃত্যুঞ্জয়। যে দুর্গানামেতে দুৰ্গতি খণ্ডে, সে দুর্গের দুর্গতি একি প্রাণে সয় । তুমি যে কোয়েছ আমায় গিরিরাজ কত দিন কত কথা । সে কথা, আছে শেলময়, মম সৃদয়ে গাথা । আমার লম্বোদর নাকি উদরের জ্বালয়, কেঁদে কেঁদে বেড়াতে । হোয়ে অতি ক্ষুধাত্তিক, সোণার কাত্তিক, পলায় পোড়ে লুটতো। গেল গেল যন্ত্রণা, উমা বলে মা, আমি এখন অন্ন অন্তকে বিলাই ॥ هوے-اسپیسے منسلیمانے কও দেখি উম, কেমন্‌ ছিলে ম{ ভিখারী হরের স্বরে । জানি নিজে সে পাগল, কি আছে সৰ্ম্মল, ঘরে ঘরে বেড়ায় ভিক্ষা করে। শুনে জামাতার দুখ, খেদে বুক বিদরে। তুমি ইন্দুবদনী, কুরঙ্গ নয়নী, কনকবরণী তারা। জানি জামাতার গুণ, কপালে আগুন, শিরে জট বাকল পরা। আমি লোকমুখে শুনি, ফেলে দিয়ে মণি, ফণী ধোরে অঙ্গে ভূষণ করে। গৌরী কোলে কোরে নগেন্দ্ররাণী, করুণবচনে কয় । উমা মা আমার সুবর্ণলতা শ্মশানবাসী মৃত্যুঞ্জয়। মরি জামাতার খেদে, তোমার বিচ্ছেদে, প্রাণ র্কাদে দিবানিশি ॥ আমি আচল নারী, চলিতে নারি, পারিনে যে, দেখে আসি। আছি জীবস্মৃত হেয়ে, আশাপথ চেয়ে ; তোমায় না হেরিয়ে নয়ন বোরে ॥ মরি, ছিছি ছি, একি কবার কথা, এ. শুনে লাঞ্জে মোরে যাই।