পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৯৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২০২ বাঙ্গালীর *नि । ছিলেন ব্রজেশ্বরী রাই কিশোর ;– হ’রে রাজত্ব তুমি তার, করেছ রাজপথের ভিকারী। মর কথায় তো ভুলব না, ত্রীরাধার যন্ত্রণ, এই মাত্র চক্ষে দেখে এসেছি। কব কি যে সুখে গোকুলে আছি। রাধার দ’সী যত সই ব্ৰজাঙ্গনা – রাধার চরণ বই জানে না, রাই মন্ত্র করে উপাসনা। কৃষ্ণ, তোমরে হারায়ে, রাধার পানে চেন্থে, আমরা সব প্রাণে বেঁচে রয়েছি। து_ _ பறக ঠাকুরদাস চক্রবর্তী। =ജ്ഞ ইনিও একজন কবির দলের গান-রচয়িত ছিলেন। গদাধর ও কৃষ্ণমোহনের স্তায় ইহারও নিজের কোনও কবির দল ছিল না। আন্‌ট্ৰনী সাহেব, রামসুন্ধর স্বর্ণকার প্রভৃতির দলে ইনি গান বাধিয়া দিতেন। ইহঁর গাণে রচনা-মাধুর্য্যের বিশেষ পরিচয় পাওয়া যায়। க_ற்கது শ্ৰীমতি, এই মিনতি রাখ গো আমার। পাবে সময়ে কালাচা, ঘুচিবে এ বিষাদ, সও গে। সও অল্প দিন আর দুখের ভার। হবি কি পাগলিনী, কমলিনি, কৃষ্ণবিরহের দায় ? ছি ছি ধৈর্ঘ্য ধর, সহ কর তুৰ্থ, সময়ে পাবে তাম রায়ু । আছে প্রমাদিনী ঐ যে কুটিলে;— সাধে কৃষ্ণসাধে বাদ, পরিবাদ ঘটালে এই গোকুলে। দুঃখ অস্তরে রাধ রাই, প্রকাশে কায নাই, ঘটাসনে জ্বালার উপর জ্বালা আর । জেনো সকলি কপালে হয়, রাধে গো, দোষ নাই কা’র । বাধ ধৈৰ্য্যগুণে প্রাণ, কিশোরি, ভাব কৃষ্ণের অভয় পদ, ঘুচিবে এ বিপদ, বিপদের কাণ্ডারী হরি। ভাব একাস্তে শ্ৰীকান্ত, হবে দুখ অন্ত, হয় দুঃখান্তে মুখ, বিধি বিধাতার ॥ নাহি একান্ত জানি বিনা শ্রীরাধায়। যতনে চরণে শরণ লয়েছি রাধার ; এ দায়ে রাখেন রাই যদি পায়, নতুবা নিরুপায়, মানের দায় সখি, আমার প্রাণ ধায় ॥ রাধার মাধব রাধার প্রেমে, সদা গো ধাধা আছি সই! নাহি অন্ত জনে জানি মনে সই, একান্ত প্রাণের রাধা বই। ব্ৰহ্ম সনাতনী, চিন্তা-স্বরূপিণী শ্ৰীমতী ;– কৃষ্ণবিরহে কি ভয় তার, বিচ্ছেদ নাই শ্রীরাধার, তুচ্ছ অনঙ্গে কি হবে তার দুর্গতি ॥ ইচ্ছাময়ী নাম শ্রীরাধার, রাই কুষ্ণের মূলাধার, ভিকারী আমি রাধার প্রেমের দায় ॥ * | ψαπΦΕ "ψ একবার বলিস্ত, আসতে বলি মাধকে, প্যারি, তোর সম্মুখে। ঐ দেখ কালিয়ে, কুঞ্জের বাহিরে দাঁড়ায়ে, কেঁদে বলতেছে—“দয়া কর রাধিকে " ॥ প্রভাতে শ্ৰীকৃষ্ণে, নিকুঞ্জের নিকটে, হেরিয়ে বৃন্দে, শ্ৰীমতীরে কয় ;

  • কাহারও কাহারও মতে এই গানটী গদাধর | মুখোপাধ্যায়ের রচিত।