পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৯৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


込o8 বাঙ্গালীর গান । স্বজনি গে| ! আমায়ু ধর গে। ধর, সে যে ত্ৰিভঙ্গ কালিয়ে, মানসে হেরিয়ে, বুঝি কি হ’ল আমারে। জুড়াই সই! তেমন কপাল আমার নয়। নিবিড় মেঘের বরণ, দলিত অঞ্জন, to of কে আসি প্রবেশিল অন্তরে ॥ দারুণ বসন্ত তপে, কুষ্ণ বিচ্ছেদে, কৃষ্ণরূপ ভাবতে ভাবতে রাই ; হলেন অচেতন, ধরে সখীগণ, রাইতে রাই যেন আর নাই। | | তোমার কমলিনী, কাল মেঘ দেখে, কৃষ্ণ বলে ধতে যায়। আমরা তায় বলি করে ধরি, ও রাই, ধোর না গো ও নয় ঐহরি ; তবু, কৈকৃষ্ণ বলে, প্যারা মূৰ্ছা যায় ॥ রাধার নবম দশ হেরে, ব্যাকুল অস্তরে, সত্বরে আসি কংসধাম । শ্ৰীগোবিন্দে কহে বৃন্দে, পদারবিন্দে করিয়ে প্রণাম । ব্রজে শু্যামবিচ্ছেদে প্যারী প্রলাপ দেখে ;– তখন চৈতন্ত পেয়ে কমলিনী কয় – এ কি দায়, বিধস্তরের প্রায়, কে আমার সৃদয়ে উদয় ? । | হেন জ্ঞান হয় আমার, ব্রহ্মাণ্ডের যত ভর, | পশিল আমার সৃদিপিঞ্জরে । সই, ভাবিতে কেন অঙ্গ সিহুরে । একে শ্ৰীকৃষ্ণবিহনে দেহ শুষ্ঠ, ( রাধানাথ হে!) তোমার রাই বলে,— এতে অষ্ঠ ভার কি সয় গে। সই ! I সুদৃপদ্মের নীলপদ্ম নিলে কে ! এ দুঃধিনীর তাপিত অঙ্গেতে, কেন এমন হলেন প্যারী, নারী বুঝিতে নারি, কে আসি হ’ল অবতীর্ণ । খাম হে, তোমায়, সমাচার দিতে এলেম মথুরায়, একে সহজে দীনে ক্ষীণে মলিনে, একি ভ্রান্তি হ'ল শ্রীরাধার, কহ গুামরায়। বিরহ-বিষেতে জ্বর , কেউ বা বীণে লয়ে, বসন্তেরে, আমার আপনার অঙ্গ আপনি ভর, বিনয়ে ধীণের প্রতি খেদ জানায়। বহিতে দুঃখের পসরা ॥ ওরে ও বীণে! ব্রজে গুম বিনে আমার অঞ্চমং কেন গে| হ’ল এ ন ; বীণে আজ শান্ত মুরস কে বাজয় ॥ যেন এ দেহের সঙ্গেতে, করিছে প্রাণ আকর্ষণ । কেবল নারদ বাজায় বাণে, সে বিনে, মনে ভাবি গে একবার, অন্তরে কি আমার, ' তুই সাজবিনে, বাজালে মুরস বাজবিনে; দেখি গে৷ হৃদয় বিদীর্ণ কেরে । বলি শেন বলেরে, আমরা নবীনে রে;

  • বাণে কি নারীর করে শোভা পায়।

তুই ত যাবিনে রে, যাবিনে যথা গুম রায়। -یویی که جمعیت تعی হরি বিনে মার বীণে, এমন দুঃখের সময় কালাচ,দ, কেন দুঃখিনীর হৃদয়ে উদয় । আমার অস্তরে প্রবল, বিচ্ছেদ দাবানল, ; পাছে তার গুমঙ্গ সই, দগ্ধ হয় ॥ । অন্তরের ধন কৃষ্ণ, অস্তরে রাখিতে, ' তোর রসেতে আর ডুবিনে, ও রস ভাবিনে রে—ও রস ভাবিনে ;— বলি বারে বরে, যা বাণে, যমুনা পারে, না গেলে সেই মধুপুরে, কৃষ্ণ পাবিনে। কার বা অসাধ ? তুই কষ্ঠের বসত্তেੇ কিন্তু ললিতে ! কপাল গুণেতে, কৃষ্ণবোল বল বীণে—বল বিপদ যায়ু ॥ ঘটিল হরিষে বিষাদ ॥ ф কৃষ্ণবিলাসের সই, আমার এ অঙ্গ, মনের দুঃখে বনে ভ্রমণ করে রাই, দুঃসহ কৃষ্ণবিরহ, তাতে আসিয়া জালায় অনঙ্গ বনফুলের মালীেথে পাঠালে।