পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩০৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দাশরথি রায়ু । মনে হয় মানে বসি, হেরব না আর কালে-শশী, কাল হলে মোহন বঁাশী, ন হেরিলে মরি প্রাণে পারিস কেহ সহচর রাখতে মোর মনকে ধরি, কালাচাঁদ--প্রেম-ভুরি,বেঁধে মনে বনে টানে ॥ ! ÂLM! ♥ ♥ o বাঙ্গাজ~যৎ । ংগে সজনি! রাই-অঙ্গ সজাব, দিয়ে কি ভুষণ। ও আর, রূপে রইল ঢাকা, রাকা-শশীর কিরণ। যার ভূষণ খাম-চিন্তামণি, চিন্তে মুনিগণ ॥ লর্ণনে যার বর্ণ হরে, তার সঙ্গে কি স্বর্ণ-হারে, যেরূপ হেরিয়ে হরে, মুনি জনার মন । ললি ত—ঝtশতাল । নিবপিতে ব্রজরাজে, ত্যজি কুল-লাজে, গতি নিন্দে গজরাজে, চলে বজরাজ-রাণী । হলে অঙ্গ ঢল ঢল, প্রেমে আঁপি ছল ছল, বলে, সখি ! চলচল,যেন চঞ্চল হরিণী। সিন্ধু-ভৈবণী—অlড় । কেমনে প্রাণ ধরি, ন হেরে মাধব-মাধুরী, ধরে না, ননদি ! তোমার চরণে ধরি ॥ কৃষ্ণপ্রেম-কৃষ্ণানলে, তিষ্ঠে না মন গোকূলে, জলে রাই-চাতকী,—বিনে বুফু-প্রেম-বারি। গোকুল.রমণীগণে, গেলে কৃষ্ণদরশনে, আমি, বিচ্ছেদ-হুতাশনে কেমনে তরি। ইরি ব্রহ্ম পরাংপর, আমারে কি হলো পর, আমি জানি পূৰ্ব্বাপর, আমরি হরি। যদি আমি বুঝাই মনে, মনোহর ভেবো না মনে, মন তাতে মন-অভিমানে, মরে গুমরি। পূৰ্বাইতে মনোরথ, কৃষ্ণপদে মন রত, ংসারে বিরত মন, দিব|-শর্করী ॥ জয়জয়ন্তী—য২ । তুমি হে কমলাকাস্ত! এত ভ্রান্ত কি ঝরণ। নাশিতে রাবণে কর, বনপশু-আরাধন। তোমার নামেতে নিস্তার, হরি! ভৎসিন্ধু—জগজ্জন। 》》 গোলোকেতে বিরাজিত, তুমি ইন্দ্রাদি-পূজিত, তুমি কঁদ শক্তি বিনে, শক্তি কঁাদে অশোক বনে হে! আবার শক্তিশেলে মরে প্রাণে, তল গ্রাণের লক্ষ্মণ ॥ - ! যদি ভক্তের মান বুঢ়াতাম রধিকে! রাই রমণীর শিরোমণি, ও অঙ্গে সাজে না মণি ৷ তবে ভৃগুমুনির পদচিহ্ন কেন আমার বুকে ॥ আমি ভক্তের ভক্ত রাধ ! ভক্তপ্রেমে বন্দী সদl, নৈলে বেন নন্দের বাধা, বহি আমি মস্তকে। দ্বিজ দাশরথি দীন, তার কি ধবে দুখে দিন, দীনবন্ধু বলি যদি দিনান্তরে ডাকে ॥ সিন্ধু-ভৈরবী—পোন্ত । কালো রূপ নৈলে তোমার কি শোভ রাই কমলিনি ! সেজেছে শ্যাম-জলদের বামে, রাধে ! সৌদামিনী ॥ তুমি শ্রাম-অঙ্গের ভূষণ, তোমার ভূষণ চিন্তামণি। হয়েছে স্বর্ণ-লতায় জড়িত নীলকান্ত মণি ॥ সিন্ধু—কাওয়ালী । কুঞ্জ-কাননে কালী, ত্যজে বাঁশী বনমালী, করে অসি ধরে শ্রীরাধাকান্ত । শ্রাম-শুমে ভেদ কেন কর রে জীব ভ্রান্ত ॥ পীতাম্বর পরিহরি, হরি হলেন দিগম্বরী, মরি মরি ! হেরি কি রূপের অন্ত । কিবা, কালে পরে কালো-শশী, লোলজিহরা এলোকেশী, ভালে শশী, অট্টহাসি, বিকট দন্ত ॥ যে গোবিন্দ-পদদ্বয়ে, সগন্ধ তুলসী দিয়ে,— মুর-নরে সাধে সারা দিনান্ত । দিয়ে সে চরণে রাঙ্গা জবা, রঙ্গিণী রাই করে সেবা, কে পারে গ্রাম চিস্তামণির ভাবে অস্ত ॥