পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দাশরথি রায় । পরজ-একতালা । কুজা প্রাণের প্রেয়সী, কঁদূবে কেন কালোশশি। তার কি নিরানন্দ থাকে, গোবিন্দ যার হৃদয়-বাদী। মিলিয়ে দিব বৃন্দাবনে, যত এক-বয়সী নারীর সনে, জটিলে মা দেই হবে ওর, বড়াই হবে দেখনহাসি। খ"াজ-কাওর লী। কে রমণী মহাকালের ঘরে! অসিখং বামার বাম করে। পরবাসে স্ববাসে কি কাননবাসে, লাজ নাহি বসে, বামা তৈয়াগিয়ে বসে,— কীৰ্ত্তিবাসের হৃদে বাস করে। শিরে তরঙ্গিণীর কত তরঙ্গ, তাই শিবের রসরঙ্গ, স্বপত্নী-সহিত দ্বন্দ্ব, নিরখিয়ে সদানন্দ, ভাসিছেন সনানন্দ-সাগরে ৷ খস্বজ-কাওয়ালী । কি শোভা কমলিনী শুমি সনে। যেন সৌদামিনী জড়িত ঘনে। দেখে রজনী বাসুরে, ভৃঙ্গ ডাকে ব্রজেশ্বরে, পদ বনাইয়ে গুণ গুণ স্বরে হেরে যুগলৰূপ কিশোর-কিশোরে, কোকিল পঞ্চমস্বরে ডাকে সম্বনে। খাম্বাজ-কাওয়ালী। সঙ্কটম্বর শিবে খামা ! গুম কবে আসিবে! গোকুল-অন্ধকার কবে নাশিবে। গোপিকা সুখে ভাসিবে, সে নীলমাধব কি প্রকাশিবে, নিদয় গোবিন্দ রাধায় ভাল বাসিবে ॥ দত্তাপহারিণী বলে লোকে ঘিৰে।

গোপীর প্রতি রাগ সম্বর, দেহি দুর্গে পীতাম্বর, ন দিলে নিতান্ত রাধা ডুবে মরিবে । श्ञै--६५ তোমরা কেউ দেখেছ নয়নে,— সেই রাধার নমুনাঞ্জন নবজলদ-বরণে। তার পরিধান পীতবসন, করে বংশী নিদর্শন, আদি বলে আদর্শন, হৈল বৃন্দাবনে ॥ শুন গে সজনি! শুন, না পেলে তার অন্বেষণ, জীবন ত্যজিবে রাধে, যমুনার জীবনে ॥ তার কমল যুগল কর, কমলিনী-মধুকর, নিন্দে কোটি সুধাকর, চরণ-কিরণে। যে চরণে ভাগীরথী, বঞ্চিত হয় দাশরথি, সে হরির চরণে ॥ शहै-उद्भदौ-७कडांला । হরি। প্যারী পড়ে ধরাসনে । ওহে ব্রজরাজ ! কি সুখে বিরাজ— কর তুমি জি-সিংহাসনে ॥ সুবৰ্ণ-বরণী রাজকুমারীর, কৃষ্ণ ভেবে কৃষ্ণবরণ শরীর, কব কি যাতনা তব কিশোরীর, আছ কি শরীর বেঁধে পাষাণে ॥ নব নব নারী করছে সোহাগ, রাগে মরি তব দেখে নব রাগ, কিসের রঙ্গরাগ কিসের অনুরাগ, সকলি বিরাগ, কিশোরী বিনে ॥ মুল্লট-ষৎ । বিরাজে ব্রজে রাধাপ্তামে রাধে কোটিচন্দ্র সাজে, কালো জলদের বামে ॥ কিবা ত্রিভুবন-মনোহর, রূপ রাধা-বংশীধর নিরখিতে গঙ্গাধর, এলেন ব্রজধামে। পুরাইতে মনসাধ, ভাবে ব্রহ্ম গদ গদ, পূজিল গোবিন্দ-পদ, চন্দন-কুসুমে। magn==