পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


* @ o দাশরথি বলে,—নয়ন-জলে ভাসি, জল কেন হয়ে এ জল-অভিলাষী, যে জল মাঝরে জলে দিবা-নিশি, কলুষ বাড়বানল ৷ ধাথ{জ—একতলা । মম মানস শুকপাখি। সুখ-মোক্ষধাম,—মুকোমল নামটী কমল আঁধি, ঐ বুলিটি ধর, আমায়ু মুখী কর, শুক নারদ যায় মুখী। সদা বল তুমি কৃষ্ণ-রাধ-রাধ, পাৰে মুধ,—ক্ষাস্ত হবে ভবের ক্ষুধা, কেন খাও রে ফলহীন ফল সদা, বিষয়-কাননে থাকি। আশা-বৃক্ষে বাস আর কেন নিয়তি, এখন হও দাশরথির অনুগত, আর রে আমি তোরে হেম-পিনিন্দিত, প্রেম পিঞ্জরেতে রাখি। সিন্ধু—আৰু-কাওয়ালী। মন রে, বিপদে ত্ৰাণ আর আর হ’লিনে। বলিতে হরি তোয় আরবলিনে। তুই এ জনমে হরিপদ-নলিনে স্থান নিলিনে। যখন জঠরেতে ছিলি, দুঃখ পেয়ে বলেছিলি, হরি ভুলে দুঃখ পেয়েছি,—আর ভুলিনে। সব কার্ঘ্য পরিহরি, এবার ভজিব হরি, ভবে এসে সে পথে তুই গেলিনে,কুপথে ভ্রমণ, সদাই কর মন, সেই শমন-দমন রাধা-রমণে মন দিলিনে ॥ পাপ-ধূলি গায় মাখিলে,—হরিপদ-হ্রদজলে,— একবার প্রবেশিয়ে, সে ধুলী তুই ধূলিনে— নিরধিতে নিরঞ্জন, গুরুদত্ত জ্ঞানঞ্জন, দূরে রেখে আঁথিতে মাখিলিনে। রে অধমাধিপ, তুইতে জ্ঞানপ্রদীপ,— নিতাইলি—দাশরথিরে নিস্তার-পথ দেখালিনে ॥ বাঙ্গালীর গান । মল্লার-কাওয়ালী । চল গে। হেরিগে কালার কাল-বরণে । কালান্ত কেন আরো, প্রাণান্ত হলো মোর, একান্ত যাব সখি, সে কাস্ত-সদনে ॥ সাজ সাজ সখি, সব সাজ সদনে,— চল সে বনে—সেই পদ-সেবনে, বিপদভঞ্জন হরির শ্ৰীপদ-দরশনে ॥. সাজ সাজ সখীসব, যাতনা কত আর সব, দিয়ে সব হয়ে সবে শবাকার,— হৃদয়ে উৎসব নাই আর সবার ;– ব্যাকুল হইয়ে কালার লাশীর রবে, কুল-গৌরবে কেবা রবে,— গোকুল মাঝারে সখি গো, কুল-ভয় কেনে ॥ খাম্বাজ—জাড়া । حسن জীবের আর ক-দিন,—এ দেহে জীবন রবে। আজ যদি না বলে, তবে কৃষ্ণ-কথা কবে কবে। দেহ-তত্ত্বে মন দেহ, এ দেহ সদা সন্দেহ, চিস্ত নীল দেহ,--(কেন) মিছে দেহের গৌরবে রবে। কি চিন্ত রে দাশরথি, বাকী দিন আর অল্প অতি। আর কবে শরণ,–হরির চরণ-পল্লবে লবে। उद्रशे-4कडाणां । ভাব,—নিৰ্ব্বিকার নিত্য-নিরঞ্জন। যে করে ত্ৰিজন-জন-স্বজন, আয়োজন বিসর্জন ॥ সে জনে নির্জনে ভাব, স্বত্ত্ব-রজঃ-তমো-বিসর্জন'; ভাব ব্রহ্ম সনাতনে, চেতনে যতনে, সে রতনে সহজ প্রেমে কর উপার্জন ; বৃথা পূজনে কি আছে প্রয়োজন ॥ সৰ্ব্ব-মনোরঞ্জন, সৰ্ব্বজন-প্রিয়জন, সৰ্ব্ব ঘটে ঘটে বিরাজমান, দেখা ঘটে কৃপা করলে সাধু জন, গুরু দিয়েছেন যার চক্ষে জ্ঞানাঞ্জন ।