পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


a বাঙ্গালীর 外t{1 সে বেদন রে আমার শেল সম হয়ে রয়েছে অস্তরে ॥ জ’ল—একতলা । সুধাও কি গো ভগ্নি, সুধাংশুবদনী, দুঃখের কাহিনী বোলবো কি। বিধি দুঃখ আহরিয়ে, (দারুণ বিধি দুঃখ আহুরিয়ে ) বিষ মিশাইয়ে গড়েছিল দুঃখের মুরুতি জানকী ॥ কোরে হরধনু ভঙ্গ,জনকপ্রতিজ্ঞায়, পরে শ্রীরাম আমায় কলে পরিণয় । পথে পরশুরামে যুদ্ধে করি জয়, অভাগীরে নিয়ে এলেন অযোধ্যায়। ওগো আমায় এনে স্বরে প্রভু, (ওগো ! আমায় এনে ধরে) রাম রঘুবরে । একদিনের অরে হলেন না মুখী ॥ যখন ক্ষিতিপতি হবেন রাম রঘুমণি আমি অভাগিনী হব রাজরাণী । কপালের লেখা স্বপনে না জানি, রাজমহিষী হতে হলেম কাঙ্গালিনী। দেখ তরুতলে বাস ত্যজে রাজবাস কেবল বনফল খেয়ে এ জীবন রাখি ॥ আমি দেখি নাই জন্মে জননী কখন, আমার জননী ধরণী জানে সৰ্ব্বজন । বিধাতার বিধি না যায় খণ্ডন, ন জানি কপালে কি আছে লিখন । দেখে প্রভূর শ্ৰীচরণ, দেবর বদন, আমার সকল ছুখ আমি নিবরিয়ে থাকি ৷ দেবগিরি বিভাস খয়র। নিয়ে জানকীরে, আর কি ধরে ফিরে, যাবি নে রে বাপ দুঃখিনীর জীবন ! আমি তোদের থুরে বনে, যাইব ভবনে, সে যে আমার বড় অসহ বেদন ॥ আর কি রে বাছ, দেখবোগো তোমাকে, । আর কি রে মা বোলে জুরাবি নে মাকে, তা কি জান না রে জগত মাঝরে, তোমা বিহনে, আমার আর কি ধন আছে ও রে বাছাধন ॥ JEME Desig I \ যোগিয়া-একতাল।। এই ছিল কি মোর কপালে লিখন। ( রাম রে ) কোথা রাজমহিষী আমি রাজার মা হইব, সাধ করে বসেছি মনে ; কোথা রাম ধন দিয়ে বনে, অযোধ্যাভবনে, হতে হ’লো কাঙ্গালিনী এখন। হতে হলো এখন ; সেই ধন হরাইয়ে, আমার কতই আরাধনের ধন রামধন হারাইয়ে ; (আমি কত আরাধন, কত যাগ যজ্ঞ কঠিন ব্রত, কোরে তোরে পেয়েছি বাপ, সেই ধন হারাইয়ে, হতে হলো এখন ; (আমার কতই আরা;) ও যার রক্ষা লাগি আপন বক্ষ চিরে, ও সেই রুধির দিয়ে কত দেব দেবী পুজেছি (সেই ধন হারাইয়ে, হতে হলো এখন ) দণ্ডে দশবার ন| দেখিলে যায়, জ্ঞান হয় যেন বুক ফেটে যায়, চোঁদ বৎসর তায়, না দেখে তোমায়, কেমনে পঁচিবে এ দুঃখিনী মায় ! তোমার শোকে যদি মরণ না হয়, কেন্দে কেন্দে অন্ধ হব যে নিশ্চয়, এক বার এস বাছাধন ও বিধুবদন, জন্মের মত হেরি থাকিতে নয়ন ॥ বিভীষ—একত,লা । প্রাণের ভরত রে তুমি আমার মাকে দেখে। মা যেন না মরেন প্রণে সদা সাবধানে রেখে | মা যখন বোসে বিরলে, কঁাদৃবেন রে ভাই ! রাম রাম বোলে, তখন তুমি যেয়ে মায়ের কোলে, চাদমুখে মা বোলে ডেকো। আমি মায়ের এমনি কুসস্তান, দূরে থাকু মায়ের মুখসম্প্রদান। জনম অবধি কেবল নিরবধি, হইলেম তার দুঃখের নিদন ॥ যদি তার গর্ভে আমি অভাজন, নাহি করিতাম ভাই ! জনম ধারণ। তা হলে কথন, থাকিতে জীবন, ও তার পুত্ৰশোকানলে দহিত না প্রাণ। চোঁদ বৎসরের পরে, যদি ফিরে আসি ঘরে,