পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩৯৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& 6& সুরট-জয়জয়ন্তী একত্তালা । বিশ্বেশ্বর শ্ৰীব্রজকিশোর, বামুদেব বাণেশ্বর, কাশীবাসী গোকুলবাসী, শৃঙ্গধর করেতে বশী, বৃষভবাহন গরুড়াসন, দীনে দয়া কর হর মুরহর, বাবাম্বর পীতাম্বর, নীলকণ্ঠ নীলকলেবর, ময়ূর মুকুট শিরে জটাভার, গলেতে বিহরে ফণী মণিহার রূপের তুলনা দুজন দোহার, কালিদাস কহে কি দিব কাহার স্মরণাগত হও হরিহর, কর বা কৃপা না করো না করে ॥ बां८ब्रांप्रl-ठू९द्रौ। ওরে গোকুলবাসী কেন রে বাজাও বাণী। তুমি অস্তরে বাজাও বাণী, আমার অস্তরে পসিল আসি ৷ বেণুরবে নীরব হইয়ে যত ব্ৰজবাসী; দুকুল হারাইল যে তারা, যমুনার তীরে আসি ॥ চুড়ায় ময়ূরপাখা মুখে মৃদু মৃদু হাসি, (এfক) অনঙ্গ স-অঙ্গ হয়ে কদম্বের ডালে বসি ॥ বাহার-ভিওট। বৃন্দাবনে ৰনে বনে বিহুরে হরি হয়ে বসন্ত । কোথায় ময়ুর ধায়, কোথায় কোকিল গায়, ভ্রমর গুঞ্জরে অবিশ্রান্ত ॥ নানা জাতি শোভে ফুল, গন্ধেতে করে আকুল, সকলেতে হইয়ে মধুমন্ত। বিরাজে মুরলীধারী, চারি দিকে ব্রজনারী, রাগ রাগিণী মূৰ্ত্তিমন্ত ॥ α£φ -ππω জংলী-একত্তালা । বলনা আমারে সখি কালিয়ে আমার সখা । কুবুজারে ভাল, অল মিলেছে বঁকাতে বাকা । शांग्न ब्राञों कॉण मञ ಇಸ್ತ್ರ বলচারী গো রাখাল, শুনিয়ে ৰেমেছি ভাল, বাণীটিতে মধুমাধা ॥ বাঙ্গালীয় গান । कांफि-चांकृ1 ।। যেমন যমুনায় গিয়েছিলাম জলে রে। জলে নিরখিয়ে কাল পরাণ জ্বলে রে ॥ জুলন্ত অনল প্রায়, কালি হইল হদয়, ভরিয়ে এনেছি কুন্ত নয়নেরই জলে । হেরিয়ে গম নয়নে, কহিতে না পারি আনে, মনে মনে মন দিয়ে এসেছি তারে । মনোমত তার মত না দেখি এ সংসারে : মনমথ মন হত করিল আমারে ॥ ইমন-একতাল।। আমার মন কেমন করে | ন হেরিয়ে গুামরূপ, অনুপম মুরলীঅধর কারে কব সই, সরমে মরমের কথা, মুখে বচন না সরে ॥ गिशू-यथाभांम ! সখি কি হ’ল আমার রে । শু,ম বাম হ’য়ে আমায় মনে না করে । ডেকে সখী ললিতায়, যদি কিছু বলি তা, কি জানি কি মনে করে ॥ নয়নে বহিছে বারি, কদাচ বারিতে নারি, অঞ্জন বহে কান্দিয়ে হৃদয় পরে। ঘুচিল দু’টি নয়ন, তবু কেন অকারণ, মম-বরণ না ফিরে ॥ बश्द्र-स्त्रप्लl । মোহন মন মোহিল সখি মোর । লেগেছে মরমে গো সপথই তোর ॥ মধুর মুরলী করে, মধুবনেতে বিহুরে, মন্দ মধুর স্বরে গুঞ্জরে ভ্রমর ॥ বাহার—তিওট। ওহে পদাঙ্ক শুন এই বচন, আন গিয়ে মাধব আমার । যদি নাহি পর, পার হতে, ইহু ভবসাগরেতে পার হও গামের স্মরণে তোমার ।